বয়কটের পথে “মির্জাপুর-২”, সিএএ বিরোধিতা করতে বিপাকে আলী ফজল ও ফারহান আখতার

মিরজাপুর ওয়েবসিরিজটি যথেষ্ট পরিমাণে জনপ্রিয়তা পেয়েছিল দর্শকদের দর্শকদের কাছে। এই ওয়েবসিরিজে অভিনয় করেছিলেন পঙ্কজ ত্রিপাঠী, ফারহান আখতার ও আলি ফজল প্রমুখরা। মিরজাপুর ওয়েব সিরিজটি এতটাই জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিল যে দর্শকরা চেয়েছিলেন মিরজাপুর ২ পার্ট যেন আসে। কিন্তু এর মধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ার একাংশ মির্জাপুর ২ নিয়ে বিরোধিতায় সরব হলেন তারা চাননা মিরজাপুর ২ রিলিজ হোক।

সম্প্রতি একটি ভার্চুয়াল বৈঠকে প্রকাশ করা হয়ছে যে মিরজাপুর ২ আগামী 23 শে অক্টোবর আমাজন প্রাইমে রিলিজ হবে। আমাজনে প্রাইমে যাদের সাবস্ক্রিপশন আছে তারাই একমাত্র দেখতে পাবে এই ওয়েব সিরিজটি। এই বৈঠকে যোগদান করেছিলেন পঙ্কজ ত্রিপাঠি, শ্বেতা ত্রিপাঠি শর্মা, ফারহান আক্তার, দিবেন্দ্যু, রসিকা, রাজেশ ও আলি ফজল।

বিশেষত আলি ফজল মিরজাপুর ২ এর মাধ্যমে জনকপ্রিয়তা অর্জন করে। মির্জাপুরে তার নাম ছিল গুন্ডা ভাইয়া। পরবর্তীতে দর্শকরা তাকে এই নামে ডাকতে থাকে , এক কথায় বলতে গেলে তিনি ওয়েব সিরিজ এর মাধ্যমে জনপ্রিয়তা অর্জন করেছেন।

সত্যি বলতে দর্শকরা অনেকদিন ধরে অপেক্ষা করছিলেন মিরজাপুর ২ ওয়েব সিরিজটি কবে সোশ্যাল মিডিয়া আসবে। কিন্তু এর মধ্যেই দেখা গেল একাংশকে বিরোধিতা করতে এই ওয়েব সিরিজটির। কারণ হলো কিছুদিন আগেই সিএএ বিরোধী কথা করতে দেখা গিয়েছিল ফাহরান আখতারকে। এই বিষয়ে নানা রকম টুইট সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করেছেন। এছাড়াও ফারহান সিএএ অনেক ক্যাম্পেইনে যোগদান করেছিলেন।

এজন্যই সোশ্যাল মিডিয়ার একাংশ এই ওয়েব সিরিজ দেখবেননা কারণ তাদের মধ্যে যারা দেশের বিরোধী করে, তাদের কাজকে সমর্থন করা উচিত নয়। অনেকে এই সম্বন্ধে পোস্ট করে বলেন, মিরজাফর ২ যদি বিনামূল্যে দেখতে দেওয়া হয় আমরা তাও দেখবোনা। আবার অনেকে পোস্ট করেছেন আমরা অনেকদিন ধরে অপেক্ষা করছিলাম কবে মিরজাপুর ২ আসবে, অবশেষে ২৩ শে অক্টোবর রিলিজ হচ্ছে আমরা খুবই খুশি।