একেই বলে ভাগ্য! স্বামীর হার্ট সার্জারির সময় উদ্বেগ ভুলতে লটারি কেটেই লাখপতি স্ত্রী

অনেকেই বিশ্বাস করেন, জীবনের হার-জিত উত্থান-পতনের নেপথ্যে রয়েছে ভাগ্য। ভাগ্যদেবী যাতে সদা সুপ্রসন্ন থাকেন, এমনটা কে না চান? ভাগ্যের জোরে সাক্ষাৎ মৃত্যুর হাত থেকেও বেঁচে ফেরা সম্ভব। আবার ভাগ্য যদি সঙ্গ না দেয়, তাহলেও বিপদ অনিবার্য। ভাগ্য যদি সুপ্রসন্ন হয়, তাহলে সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিতভাবেই হাতে চলে আসতে পারে প্রচুর অর্থ। চলতি কথায় যাকে বলে “লটারি”।

শুধুমাত্র ভাগ্যের জোরেই চরম দুঃসময়ে রীতিমতো লটারি জিতে নিলেন লন্ডনের বাসিন্দা উইনি স্মিথ। একটি আন্তর্জাতিক সংবাদ মাধ্যম “দ্য সান” এর প্রতিবেদন থেকে জানা গেল, উইনির স্বামী পিটার হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি। চিকিৎসকেরা তার হার্ট সার্জারির সিদ্ধান্ত নেন। স্বামীর স্বাস্থ্য নিয়ে উদ্বেগে ভুগছিলেন উইনি।

পিটারের হার্ট সার্জারি সময় উদ্বেগ ভুলে থাকতে নিছকই খেলার ছলে ৫ সংখ্যার একটি বাজি ধরেছিলেন উইনি। আর এই বাজি খেলার জেরেই উইনি জিতে নিলেন ২৫ হাজার ইউরো। ভারতীয় মুদ্রায় যা প্রায় লাখখানেক টাকারও বেশি। উইনি জানিয়েছেন, করোনা সংক্রমনের জেরে তিনি এখন স্বামীকে দেখার জন্য হাসপাতালে যেতে পারছেন না। তাই মানসিক উদ্বেগ কমাতে বাড়ি খেলায় মন দিয়েছিলেন তিনি।

বাজি খেলার জন্য তাকে পাঁচটি সংখ্যা বেছে নিতে হয়েছিল। এর জন্য তিনি তার এবং পিটারের জন্মদিন, তাদের বিবাহ তারিখের সংখ্যাগুলিকেই বেছে নিয়েছিলেন। আর এভাবেই তিনি জিতে নিলেন বাজি। উইনির স্বামী পিটার এখন সম্পূর্ণভাবে সুস্থ। অপারেশন হওয়ার পর পিটার যখন স্ত্রীর সাফল্যের কথা জানতে পারলেন, তখন রীতিমতো অবাক এবং আনন্দিত হয়েছিলেন তিনি। উইনির ইচ্ছা, পিটার সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে গেলে তারা এই টাকা দিয়ে মালদ্বীপ ভ্রমণে যাবেন।