করাচি স্টক এক্সচেঞ্জে জঙ্গি হামলা, দায়ী ভারত: ইমরান

সোমবার সকালে পাকিস্তানের স্টক এক্সচেঞ্জের বিল্ডিং এ ঢুকে গ্রেনেড হামলা চালায় চার জন দুষ্কৃতী। দুষ্কৃতীদের এলোপাথাড়ি গুলিতে মৃত্যু হয়েছে এক সাব-ইন্সপেক্টর সহ চার নিরাপত্তাকর্মীর। এই ঘটনায় সরাসরি ভারতকেই দায়ী করেছে পাকিস্তান সরকার। পরে অবশ্য করাচি পুলিশ সুপার গুলাম নবি মেমন জানান, খতম করা হয়েছে ওই চার দুষ্কৃতীকে। এই জঙ্গি হামলার ঘটনা প্রসঙ্গে মঙ্গলবার, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান পাকিস্তানি সংসদে ভারতের বিরুদ্ধে অভিযোগ এনে বলেন,”এ বিষয়ে কোনো সন্দেহ নেই যে, পাকিস্তানের স্টক এক্সচেঞ্জে সংঘটিত জঙ্গি হামলার ঘটনার পেছনে ভারতের হাত রয়েছে।”

২০০৮ সালের ২৬/১১ তে ভারতে সংঘটিত মুম্বাই হামলার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে ইমরানের দাবি,”করাচিতে মুম্বাইয়ের ঘটনারই পুনরাবৃত্তি করার চেষ্টা করেছিল ভারত। কিন্তু তা আটকে দিয়েছে পাকিস্তান। সফল হয়নি ভারত।” ভারতের বিরুদ্ধে তাঁর অভিযোগ,”পাকিস্তানে অস্থিরতা ছড়াবার চেষ্টা করেছিল ভারত, কিন্তু আমরা প্রস্তুত ছিলাম।”

এদিন সংসদে পাকিস্তানি প্রধানমন্ত্রীর দাবি,”দু’মাস আগে থেকেই পাকিস্তানের মন্ত্রিসভার কাছে খবর ছিল পাকিস্তানের উপর এরকম একটি আক্রমণ হতে পারে। আক্রমণের সম্ভাবনার কথা মন্ত্রিসভাকে জানানো হয়েছিল। পাশাপাশি পাকিস্তানের গোয়েন্দা সংস্থা গুলি ও এ বিষয়ে তৎপর ছিল।” পাশাপাশি মৃত দের উদ্দেশ্যে তিনি বলেন,”হামলা যারা মারা গেছেন তারা প্রকৃত পাকিস্তানের হিরো।তাদের আত্ম বলিদান এর মাধ্যমে এত বড় ষড়যন্ত্র ব্যর্থ করা গেছে।”