করুন পরিস্থিতি দেশজুড়ে, এক হাতে ঝুলছে শিশু, লরিতে ঠাসাঠাসি করে বাড়ি ফিরছে পরিযায়ীরা

লরিতে ঠাসাঠাসি করে বাড়ি ফিরছে পরিযায়ীরা

দেশে এখন চলছে তৃতীয় দফার লক ডাউন , আর সেই কারণেই এখন শ্রমিকদের ফেরানোর নিয়ে অনেক ঝামেলার মধ্যে পরেছে সরকার। ইতিমধ্যে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফেরানোর জন্য কেন্দ্র ট্রেনের ব্যবস্হাও করেছে। কিন্তু সেই ট্রেনে ওঠার সুযোগ অনেকেই পায় নি। তাই তারা অন্যের ওপরে ভরসা না করে ,কেউ পায়ে হেঁটে, কেউ বা সাইকেলে চড়ে গন্তব্যে রওনা হয়েছে।

কিন্তু তাও অনেকে দুর্ঘটনার স্বীকার হয়েছে। এমনকি তাদের প্রাণ হানিও ঘটেছে। তাই সেই সব নিয়ে সরব হয়েছে অনেকেই। এবার এমন এক দৃশ্য চোখের সামনে ভেসে উঠলো যা দেখে তাদের করুন অবস্হার কথা বুঝিয়ে বলার দরকার নেই। ঘটনাটি ঘটেছে ছত্তিশগড়ের রায়পুরে। পরিযায়ী শ্রমিকের দল তেলেঙ্গানা থেকে হেঁটে বেড়িয়েছে ,তাদের গন্তব্য ঝাড়খন্ড। কিন্তু তারা ছত্তিশগড়ে এসে একটি লড়ির ব্যবস্হা করে, আর সেটাতে চেপেই তারা গন্তব্যে রওনা দেয়।

পরে যখন সেই সব শ্রমিকদের কাছে সাংবাদিকেরা জিজ্ঞাসা করে তখন তারা বলে, আসলে ট্রেনের ব্যবস্হা কর হলেও ,আমাদের জানা নেই কিভাবে ট্রেনে চাপা যাবে, তাই উপায় না দেখে এই হাঁটাপথ বেছে নিয়েছি। আর আমাদের কাছে নেই কোনো উপায় । আমরা অসহায়, আমরা যেখানে কাজ করি সেখানেও খাবারের ব্যবস্হা নেই, না থাকার ব্যবস্হা তো সেখানে থেকে আর লাভ নেই। তাই বাড়ির উদ্দেশ্যে ফিরে যাচ্ছি।

যখন শ্রমিকেরা দড়িতে করে বাড়ি ফেরার জন্য দড়িতে চাপছিল তখন হুড়োতাড়া লেগে গিয়েছিল। আর সেখানেই একটি দৃশ্য চোখের সামনে এসেছিল যে,একজন শ্রমিক তার শিশুকে তুলে দিচ্ছে দড়িতে, এক হাত দিয়ে। এই দৃশ্যের মধ্যেই সব ব্যক্ত হয়েছে ,কত কষ্টে তারা গন্তব্যে ফিরছে, কত প্রতিকূলতাকে উপেক্ষা করে বাড়িতে ফিরছে, একজন পরিবহণ কর্মী সেই দৃশ্য দেখে জানায়, প্রশাসনের আরও ভাবা উচিত। তারা শ্রমিকদের জন্য আরও পরিবহণের ব্যবস্হা করতে পারত। আমি কাজ করি ,কিন্তু আমি চেষ্টা করেও কোনো যানের জোগাড় করতে পারি নি।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন

/p>