কৃষকদের উদ্দেশ্যে বার্তা, কৃষি আইন স্থগিত রাখতে এখনো রাজি কেন্দ্র: প্রধানমন্ত্রী মোদি

কেন্দ্রের প্রণীত নতুন তিনটি বিতর্কিত কৃষি আইন নিয়ে কেন্দ্র এবং কৃষকের তরজা এখনো থামেনি। কৃষকরা এখনও তাদের আইন প্রত্যাহারের দাবিতে অনড়। অপরপক্ষে কেন্দ্রীয় সরকার এই প্রতিবাদ বিক্ষোভের মুখে পড়ে ১৮ মাসের জন্য কৃষি আইন স্থগিত রাখার প্রস্তাব দিয়েছে। তবে কেন্দ্রীয় সরকারের সেই প্রস্তাব মানতে নারাজ কৃষক সংগঠন। আইন প্রত্যাহার ছাড়া অন্য কোনো প্রস্তাব তারা মানতে রাজি নন।

এমন অবস্থায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ফের কৃষকদের উদ্দেশ্যে বিশেষ বার্তা দিলেন। তিনি ফের জানিয়েছেন, কেন্দ্র এখনও ১৮ মাসের জন্য কৃষি আইন স্থগিত রাখতে আগ্রহী। বিষয়টি এখনও আলোচনার টেবিলেই রয়েছে। কৃষকরা চাইলে এই প্রস্তাব কার্যকর করবে কেন্দ্রীয় সরকার। প্রধানমন্ত্রী এও জানিয়েছেন, কেন্দ্রের তরফ থেকে এই কৃষি আইন সংক্রান্ত বিবাদ মেটানোর আপ্রাণ চেষ্টা চালানো হচ্ছে।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, কৃষি আইন নিয়ে বিতর্কের আবহে কৃষকদের সঙ্গে ইতিপূর্বে কেন্দ্রের ১১ বার বৈঠক হয়েছে। তবে তাতে বিশেষ লাভ কিছুই হয়নি। কৃষকরা তাদের দাবিতে অনড়। অপরপক্ষে কেন্দ্র কিছুটা পিছু হটে ১৮ মাসের জন্য কৃষি আইন করার প্রস্তাব দিচ্ছে। তবে কেন্দ্রের এই প্রস্তাব কৃষকরা মেনে নিতে রাজি নন বলে জানিয়ে দিয়েছে কৃষক সংগঠনগুলি।

কেন্দ্রের তরফ থেকে অবশ্য বিক্ষোভরত কৃষকদের ইতিপূর্বে বহুবার নতুন কৃষি আইনের উপকারিতা সম্পর্কে বোঝানোর প্রচেষ্টা চালানো হয়েছে। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী বারংবার বলেছেন, কৃষকদের স্বার্থেই নতুন কৃষি আইন আনা হয়েছে। এতে কৃষকরা সরাসরি নিজেদের ফসল বিক্রি করতে পারবেন। ভালো দাম, উন্নত পরিকাঠামো সবই পাবেন। তবে তাতে অবশ্য আশ্বস্ত হননি কৃষকরা।