রাষ্ট্রপতির সা’থে বৈ’ঠ’ক রাজ্যপালের, কা’র’ণ নি’য়ে জ’ল্প’না রাজ্য রাজনীতিতে

ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়ে বরাবরই সরব রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়। ভোট-পরবর্তী দলবদল নিয়ে সম্প্রতি তাঁর কাছে নালিশ জানাতে গিয়ে ছিলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। ঠিক তার পরেই দিল্লির উদ্দেশ্যে পাড়ি দিলেন রাজ্যপাল। দিল্লিতে গিয়ে তিনি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে বৈঠক করবেন বলে জানা যাচ্ছে। সোমবার শুভেন্দু অধিকারীর সঙ্গে বৈঠকের ঠিক ২৪ ঘন্টার মাথাতেই দিল্লির পথে রাজ্যপাল। বিষয়টিকে যথেষ্ট গুরুত্ব সহকারে বিবেচনা করছে রাজনৈতিক মহল।

রাজ্যের আইন শৃঙ্খলা নিয়ে বরাবর প্রশ্ন তুলে এসেছেন তিনি। ভোট পরবর্তী হিংসা নিয়েও বারংবার রাজ্য সরকার্যকে তিনি দুষেছেন। বাংলায় গণতন্ত্র নিঃশ্বাস নিতে পারছে না! এমনও অভিযোগ তুলেছেন রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে। মঙ্গলবার আচমকা দিল্লি সফরে গিয়ে একের পর এক কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর সঙ্গে তিনি দেখা করেছেন। জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানের সঙ্গেও তার বৈঠক হয়েছে বলে জানা যাচ্ছে।

আজ শোনা যাচ্ছে তিনি রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে বৈঠক করতে চলেছেন। বৃহস্পতিবার সকালে একটি টুইট বার্তায় তিনি এমনটাই জানিয়েছেন। প্রসঙ্গত কেন্দ্রের অন্দরমহল সূত্রের খবর, বাংলায় নাকি শীঘ্রই রাজ্যপাল পরিবর্তন হতে চলেছে। বাংলায় পরবর্তী রাজ্যপালের দাবীদার হিসেবে আরিফ মহম্মদের নাম উঠে আসছে। রাজ্য সরকারের সঙ্গে রাজ্যপালের বারংবার সংঘাতের কারণে নাকি এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে কেন্দ্র।

তবে শেষ পর্যন্ত কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্ত কার্যকর করা হবে কিনা তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। বিষয়টি আপাতত আলোচনার পর্যায়ে রয়েছে বলে জানা যাচ্ছে। প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বিভিন্ন ইস্যুকে কেন্দ্র করে রাজ্য সরকার এবং রাজ্যপাল বারংবার সংঘাতে জড়িয়েছেন। তাদের টুইট যুদ্ধের কথা কারোও অজানা নেই। রাজনৈতিক মহলে গুঞ্জন, রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে নালিশ জানাতেই দিল্লি পৌঁছেছেন রাজ্যপাল।