ডাক্তারি পড়ুয়া-প্রশিক্ষণরত নার্সদের কো’ভি’ড চি’কি’ৎসা’য় ব্যবহার ক’রা হ’বে, সিদ্ধান্ত কেন্দ্রের

দেশের করোনা পরিস্থিতি আবার নাগালের বাইরে চলে যাচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে হাসপাতালের বেডের অভাব দেখা দিচ্ছে। অক্সিজেন সিলিন্ডার ,ওষুধপত্র, এমনকি চিকিৎসকের অভাবেও ধুঁকছে দেশের স্বাস্থ্য পরিকাঠামো। এই পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার জন্য এবার মেডিক্যাল পড়ুয়া ও শিক্ষানবিশ ডাক্তারদেরও করোনা যুদ্ধে কাজে লাগানোর কথা ভাবছে কেন্দ্র সরকার।

সোমবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এই মর্মে একটি নির্দেশিকা প্রকাশ করে জানান, এই কঠিন মুহূর্তে শিক্ষানবিশ ডাক্তার ও মেডিক্যাল কলেজের ফাইনাল বর্ষের পড়ুয়াদের প্রয়োজনে কাজে লাগানো যাবে। তারা টেলিফোন মারফত করোনা রোগীদের পরামর্শ দিতে পারবেন। মৃদু উপসর্গ যুক্ত রোগীর চিকিৎসাও করানো যেতে পারে তাদের দিয়ে।

তবে এদের অবশ্যই সিনিয়র ডাক্তারের অধীনে কাজ করতে হবে বলে জানিয়ে দিয়েছে প্রধানমন্ত্রী দপ্তর। বিএসসি নার্সিং ও জিএনএম (জেনারেল নার্সিং অ্যান্ড মিডওয়াইফ) ডিগ্রিধারী নার্সদেরও এই কাজে ব্যবহার করা যেতে পারে বলে জানিয়েছে প্রধানমন্ত্রী দপ্তর। এরাও সিনিয়র ডাক্তারের অধীনেই কাজ করবেন।