বাসি রুটির ব’হু গু’ণ, জানলে আ’র ফে’লে দেবেন না

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের মতে, বাসি খাবার খাওয়া স্বাস্থ্যের পক্ষে উপযোগী নয়। খাবার সবসময় টাটকা এবং প্রয়োজনে গরম করে খাওয়ারই পরামর্শ দিয়ে থাকেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। তবে জানেন কি বাসি রুটি খেলে কিন্তু তার শরীরের পক্ষে অত্যন্ত ভালো? বাসি রুটি সুস্বাস্থ্য পেতে সাহায্য করে। অতএব নিঃসন্দেহে বাসি রুটি খেতেই পারেন। তা শরীরের ক্ষতি করবে না।

ভোরবেলা উঠে ব্রেকফাস্ট কিছু না থাকলে যদি ঘরে বাঁশের উঠে থাকে তাহলে তার দুধ দিয়ে খেয়ে নেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা। এতে পেট ঠান্ডা থাকবে এবং দীর্ঘক্ষন শক্তি পাবেন। যাদের হজমের সমস্যা রয়েছে, তারাও বাসি রুটি খেতে পারেন। বাসি রুটি খেলে তা হজমের সমস্যা দূর করে। রুটির মধ্যে যে ফাইবার থাকে, দীর্ঘক্ষন সময়ের পর তো আরো বেশি শক্তিশালী হয়ে ওঠে।

রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে রাখতে দুধের সঙ্গে বাসি রুটি মিশিয়ে খেতে পারেন। এতে শরীরে সোডিয়ামের পরিমাণ ঠিক থাকে। রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণে থাকে। বাসি রুটির মধ্যে যে জিংক থাকে, তা শরীর থেকে টক্সিন দূর করে। শরীরে কোলাজেন বৃদ্ধি পায়। যার ফলে ত্বক উজ্জ্বল হয়ে ওঠে। ডায়াবেটিসের সমস্যাও দূর করে বাসি রুটি। গবেষণায় দেখা গিয়েছে, বাসি রুটি শরীরকে ঠাণ্ডা রাখতে সহায়ক। তাহলে এবার থেকে আর রুটি বাসি থেকে গেলে তা আর ফেলে দেবেন না। সঠিক উপায় খেয়ে নিতে পারেন বাসি রুটি। শরীরের পক্ষে অত্যন্ত উপকারী এই রুটি।