প্রবীণদের জন্য “চোখের আলো” প্রকল্প আনলেন মমতা, হবে বিনামূল্যে ছানি অপারেশন

আসন্ন একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রেক্ষাপটে রাজ্যবাসীর মন জয় করতে মরিয়া প্রচেষ্টা চালাচ্ছে রাজ্য সরকার। নবান্নের তরফ থেকে নিত্যদিনেই রাজ্যের সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে কোনো না কোনো নতুন প্রকল্পের শিলান্যাস করা হচ্ছে। “স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্প”র পর এবার রাজ্যবাসীর জন্য নতুন চমক নিয়ে হাজির মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যবাসীর চোখের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে মুখ্যমন্ত্রী সোমবার “চোখের আলো” নামক এক নতুন প্রকল্পের শিলান্যাস করলেন।

সোমবার, নবান্নে এই নতুন প্রকল্পের শিলান্যাস করতে গিয়ে মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, “চোখের আলো” প্রকল্পের আওতায় আগামী পাঁচ বছরের জন্য রাজ্যের অন্তত ২০ লক্ষ বৃদ্ধ-বৃদ্ধার চোখের ছানি অপারেশন করানো হবে। রাজ্য সরকারের উদ্যোগে বিনামূল্যে এই পরিষেবা পাবেন রাজ্যবাসী। এছাড়াও প্রায় আট লক্ষেরও বেশি মানুষকে বিনা মূল্যে চশমা প্রদান করবে রাজ্য সরকার। শুধু তাই নয়, বৃদ্ধ-বৃদ্ধার পাশাপাশি ছোটদের চোখেরও খেয়াল রাখবে রাজ্য সরকার।

মুখ্যমন্ত্রী জানালেন, রাজ্যের প্রত্যেক স্কুল পড়ুয়ার চোখের খেয়াল রাখবে রাজ্য সরকার। এর জন্য রাজ্য সরকারের উদ্যোগে প্রত্যেক সরকারি স্কুলে গিয়ে সেখানে পাঠরত ছাত্র-ছাত্রীদের চোখের চেকআপ করানো হবে। প্রয়োজন অনুসারে ছাত্র-ছাত্রীদের বিনামূল্যে চশমাও প্রদান করা হবে। সরকারি স্কুল ছাড়াও অঙ্গনওয়াড়ি কেন্দ্র গুলিতে যে শিশুরা রয়েছে তাদেরও চোখের চেকআপ করানো হবে বলেই আশ্বস্ত করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

মুখ্যমন্ত্রী আরো জানিয়েছেন, “চোখের আলো” প্রকল্পকে বাস্তবায়িত করতে বেশকিছু চক্ষু বিশেষজ্ঞ এবং স্বাস্থ্য কর্মী নিয়োগ করবে রাজ্য সরকার। তারাই সাধারণ মানুষের কাছে রাজ্য সরকারের এই প্রকল্প সম্পর্কিত যাবতীয় পরিষেবা পৌঁছে দেবেন। “চোখের আলো” প্রকল্পের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের জন্যেও এদিন বিশেষ ঘোষণা করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। উত্তর বঙ্গের মানুষেরা যাতে স্বাস্থ্যপরিসেবা পান সেই উদ্দেশ্যে এবার সেখানে একটি ট্রমা কেয়ার সেন্টার গড়ে তুলতে চলেছে রাজ্য সরকার।