বাড়ি থেকেই শিশুর আধার কার্ড বানিয়ে ফেলুন, জানুন কি কি করতে হবে

আমাদের দেশে ভোটার আইডেন্টি কার্ড করার পাশাপাশি সমান ভাবে করতে হয় আধার কার্ড। সদ্যজাত শিশুর জন্য আধার কার্ড করতে গেলে আপনি কি কি সুবিধা পেতে পারেন, তা নিয়ে আজকে এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানবো। সদ্যোজাত শিশুর আধার কার্ড তৈরির আবেদন আপনি করতে পারেন অনলাইনে। আবার কিছু দেশের হাসপাতালে বাচ্চাদের আধার কার্ড তৈরি করে দেয়। আধার কার্ড না থাকলে আপনার বাচ্চার ভবিষ্যতে সমস্যা দেখা দিতে পারে।

ইউ আই ডি এ আই টুইট করে লিখেছেন যে, প্রত্যেককে আধারের জন্য তালিকাভুক্ত করা উচিত। নবজাতকের নাম লেখানো যেতে পারে সেখানে। নবজাতকদের জন্য দরকার জন্মের প্রমাণপত্র এবং বাবা-মায়ের যেকোনো আধার কার্ড।

বায়োমেট্রিক ডাটা একদিন থেকে পাঁচ বছর পর্যন্ত শিশুর আধার কার্ড তৈরিতে নেওয়া হয় না। যখনই শিশু পাঁচ বছর পার হয়ে যাবে, তখনই বাচ্চাদের বায়োমেট্রিক পরিবর্তন হয়। সন্তানের পাঁচ বছর হলে সেটিকে আপডেট করে নিতে হবে।

সন্তানের জন্ম গ্রহণ এবং বাবা মায়ের একজনের আধা কার্ড এবং পরিচয় পত্র লাগবে। এই নথির সাহায্যে খুব সহজে আপনি করতে পারবেন আপনার সন্তানের আধার কার্ড।

প্রথমে ইউ আই ডি এ আই ওয়েবসাইটে যেতে হবে, আধার কার্ডের রেজিস্ট্রেশনের লিংকে ঢুকতে হবে আপনাকে।সেখান থেকে ফরম ডাউনলোড করে লিখতে হবে সন্তানের নাম, আপনার মোবাইল নম্বর এবং ইমেইল আইডি ঠিকানা। আপনি আধার কার কেন্দ্রের জন্য অ্যাপার্মেন্ট করবেন সেখানেই। এবার সমস্ত প্রয়োজনীয় কাগজপত্র দিয়ে নির্দিষ্ট দিন এবং আধার এনরোলমেন্ট সেন্টার এ যেতে হবে আপনাকে। এই সহজ কিছু পদ্ধতির দ্বারা আপনি করতে পারবেন আপনার সন্তানের আধার কার্ড। তা হলে দেরি না করে আজই শুরু করে দিন প্রক্রিয়া।