সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন

SSKM-র অব্যবস্থা নিয়ে প্রশ্ন তুললেন মদন মিত্র, ব’য়’ক’টে’র ডা’ক বিধায়কের

সরকারি হাসপাতালের বিরুদ্ধে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন মানুষ নানান রকম অভিযোগ আনে। মমতা ব্যানার্জির সরকার সরকারি হাসপাতালকে পরিকাঠামো গত উন্নয়ন করলেও নানান সময় নানান অভিযোগ সামনে আসে। তবে এবার রাজ্যের অন্যতম নামকরা পিজি হাসপাতালের বিরুদ্ধে গুরুতর অভিযোগ আনলেন কামারহাটির তৃণমূল বিধায়ক তথা রঙিন বয় মদন মিত্র।

দীর্ঘক্ষণ দাঁড়িয়ে থেকেও এক দুর্ঘটনা গ্রস্তকে হাসপাতালে ভর্তি করাতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত স্বাস্থ্য সচিব মন্ত্রীকে জানিয়েছেন কিন্তু তা সত্ত্বেও কোন লাভ হয়নি বলে অভিযোগ করেছেন। হুংকার দিয়ে বলেছেন সিপিএম আমল হলে ভর্তি করাতে এক মিনিট সময় লাগতো।

শুক্রবার রাতেই বাইক দুর্ঘটনায় গুরুতর যখন হয়েছেন শুভদীপ পাল নামে এক যুবক তিনি আবার ওই হাসপাতালের একজন ল্যাব টেকনিশিয়ান। তাকে হাসপাতালে ভর্তি করতে গিয়েছিলেন মদন মিত্র কিন্তু তার দাবি ৬ ঘন্টা অ্যাম্বুলেন্সে রেখে দিতে হয় শুভদীপকে।

হাসপাতালে ঢোকার সময় পুলিশ এবং কর্মীদের সঙ্গে নাকি তুমুল কলহতে জড়িয়ে পড়েন মদন। মেডিকেল অফিসারকে ডাকা হলেও তিনি আসেননি বলে অভিযোগ করেন মদন মিত্র। তিনি বলেন এই হাসপাতালের দালাল রাজ সক্রিয় রয়েছে টাকার খেলা চলছে টাকা দিলেই তবে পাওয়া যায় পরিষেবা।

ফোন করেছিলেন চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যকে। কিন্তু তিনি জানিয়েছেন এখন ব্যস্ত আছি। এদিকে মদন চিৎকার করে বলেন আমি মদন মিত্র। এটা সিপিএম আমল হলে ভর্তি করাতে এক মিনিট লাগতো। গোটা ঘটনায় মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেছেন তিনি। তিনি সাধারণ মানুষকে ডেকে বলেন আপনারা কেউ এই হাসপাতালে আসবেন না। আমি পিজির সুপার ডিরেক্টরের পদত্যাগ দাবি করছি।