লাফিয়ে বাড়ছে সংক্রমণ, ৩১ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণা মহারাষ্ট্রে

এবার দেশের মধ্যে আরেক রাজ্যে ঘোষণা করা হল লকডাউন। দেশের মধ্যে ৩০ জুন পর্যন্ত লক ডাউন ঘোষণা করা হয়েছিল, তবে সেটা সব জায়গায় না। কারণ দেশে এখন চলছিল আনলক-১। কিছুদিনের মধ্যেই আনলক-২ এর ঘোষণা পর্যন্ত করা হবে বলেও জানিয়েছেন প্রধান মন্ত্রী। এবার সেখানেই মহারাষ্ট্র সরকার ৩১ জুলাই পর্যন্ত লকডাউন ঘোষণ আকরে দিল। তবে মহারাষ্ট্র প্রথম রাজ্য না যে, এমন ধরনের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এর আগে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে পশ্চিমবঙ্গ।

কেন্দ্রীয় সরকার জানিয়েছিল কেবলমাত্র কনটেনমেন্ট জোনেই শুধু লকডাউন জারি থাকবে ৩০জুন পর্যন্ত। আর বাকি সব জায়গায় ধীরে ধীরে খুলে দেওয়া হবে সব। ইতিমধ্যে ধর্মীয় স্থান, শপিং মল, থিয়েটার সব কিছুই খুলে দেওয়া হয়েছে। সাথে পরিবহণ ব্যাবস্থাও। ইতিমধ্যে অন্ত্ররদেশীয় বিমান ব্যবস্থাও খুলে দেওয়া হয়েছে। ট্রেন চালু করা হয়েছিল ঠিকই কিন্তু ফের ১২ আগষ্ট পর্যন্ত সব বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে ট্রেন পরিষেবা। অফিস আদালত সব কিছুই। কিন্তু এর মধ্যেই দেশের দুটি রাজ্য এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।

তবে এই লকডাউন আগের মতো হবে না, কারণ এর মধ্যে থাকবে বিভিন্ন কিছু ছাড়। ছাড় দিয়েই লকডাউন জারি করা হবে মহারাষ্ট্রে। পশ্চিমবঙ্গেও এই ভাবেই জারি করা হয়েছে লকডাউন। এখনও সেই নির্দেশিকা জারি করা হয় নি। তবে আজ মহারাষ্টের প্রধানমন্ত্রী মন্ত্রীসভার বৈঠক করেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখন আসলে দেশের অবস্থা খুব একটা ভালো না। কারণ দেশের মধ্যে প্রায় দৈনিক ২০,০০০ এর মতো নতুন সংক্রমণ হয়েই যাচ্ছে। সাথে বেড়ে যাচ্ছে মৃত্যুর সংখ্যা। এবার তাই মহারাষ্ট্রে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হল। কারণ দেশের মধ্যে সব থেকে আক্রান্তের সংখ্যা ও মৃত্যুর সংখ্যা মহারাষ্ট্রেই।