ল’ক’ডা’উ’ন আ’ত’ঙ্ক, ডাল থেকে তেল, প্রয়োজনীয় জিনিসের মূল্য আ’কা’শ’ছোঁ’য়া, হু হু করে বাড়ছে দাম

দেশে করোনা আক্রমণ করে বসতেই জিনিসপত্র অগ্নিমূল্য হয়ে উঠেছে। বাজার দোকানের নিত্যপ্রয়োজনীয় প্রতিটি সামগ্রীর দাম আকাশ ছোঁয়া। চাল, ডাল, ভোজ্যতেল, সবজি সবের দাম রেকর্ড হারে বেড়েছে। চলতি বছরের ফেব্রুয়ারি থেকে মার্চ মাসের মধ্যেই ভারতের সমস্ত জিনিস পত্রের দাম ৪.১৭ শতাংশ থেকে ৭.৩৯ শতাংশ পর্যন্ত বৃদ্ধি পেয়েছে। ২০১২ সালের অক্টোবর মাসে শেষ এমন মুদ্রাস্ফীতি নজরে এসেছিল।

মুদ্রাস্ফীতির সবথেকে বড় প্রভাব পড়েছে ভোজ্য তেলের দামের উপর। সয়াবিন তেলের দাম প্রতি লিটার ১৫০ টাকা। ২০২০ সালের সেপ্টেম্বর মাস অনুযায়ী এই দাম ছিল লিটার প্রতি ১০০-১১০ টাকা। সেই তুলনায় ভোজ্যতেলের দাম অনেকাংশে বৃদ্ধি পেয়েছে। এদিকে এপ্রিল মাসে লিটার প্রতি রিফাইন তেলের দাম ৯-১০ টাকা বৃদ্ধি পেয়েছে যার ফলে ১০ কিলো রিফাইন তেলের দাম হয়েছে ১,৪১৫ টাকা।

তেলে পাশাপাশি ডালের দাম রেকর্ড হারে বৃদ্ধি পেয়েছে। অড়হড় ডাল, ছোলার ডাল, মসুর ডালের দামের অস্বাভাবিক মূল্যবৃদ্ধিতে সাধারণের পকেট গড়ের মাঠ হয়ে যাওয়ার জোগাড়। বাজারেও যেন আগুন ঝরছে। ২০ টাকা কেজি সবজির দাম উঠেছে ৫০ টাকায়। জিনিসপত্রের দামের ঝাঁঝেই প্রাণ ওষ্ঠাগত মধ্যবিত্তের।