পশ্চিমবঙ্গ ও মহারাষ্ট্র আলাদা দেশ হোক, মমতা-উদ্ধবকে চিঠি খালিস্তানীদের

অবিলম্বে ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যাক পশ্চিমবঙ্গ এবং মহারাষ্ট্র! ভারত থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে এই দুই রাজ্যের পৃথক রাষ্ট্র গঠন করা উচিত বলেই অদ্ভুত এক দাবি তুলেছে খালিস্তান পন্থী সংগঠন “শিখ ফর জাস্টিস”। এই সংগঠনের সদস্যরা এমন অদ্ভুত দাবির তুলে সেই মর্মে মহারাষ্ট্র এবং পশ্চিমবঙ্গ সরকারের কাছে চিঠিও পাঠিয়েছে বলে জানা গিয়েছে। পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং মহারাষ্ট্রের মুখ্যমন্ত্রী উদ্ভব ঠাকরে ইতিমধ্যে সেই চিঠি পেয়েও গিয়েছেন।

উল্লেখ্য, খালিস্তান পন্থী এই সংগঠনটি ভারতবিরোধী বলেই রাজনৈতিক ইতিহাসে প্রসিদ্ধ। তাদের দাবি, পশ্চিমবঙ্গ এবং মহারাষ্ট্র উভয় রাজ্যই সভ্যতা সংস্কৃতি দিক থেকে অত্যন্ত সমৃদ্ধ রাজ্য। এই দুই রাজ্য যদি ভারতের সঙ্গে সংযুক্ত থাকে তাহলে দুই রাজ্যের সভ্যতা-সংস্কৃতি, মর্যাদা, ভাষা, ঐতিহ্যের অবনমন ঘটবে! তাই অবিলম্বে এই দুই রাজ্য সরকারের রাজ্য দুটিকে দেশ থেকেই পৃথক করে আলাদা দেশ গঠন করা উচিত।

শিখ ফর জাস্টিসের জেনারেল কাউন্সেল গুরপতওয়ন্ত সিং পান্নুমের দাবি, বাংলা এবং মহারাষ্ট্র সংস্কৃতিগত দিক দিয়ে অত্যন্ত সমৃদ্ধ। এই দুই রাজ্যের ঐতিহ্যবাহী সংস্কৃতির সকল সুযোগ সুবিধা নিচ্ছে রাষ্ট্র। এমনটা হওয়া উচিত নয়। প্রসঙ্গত, ভারত বিরোধী প্রচার চালানোর অভিযোগে ২০১৯ সালেই কেন্দ্রের তরফ থেকে সংশ্লিষ্ট সংস্থাটিকে নিষিদ্ধ বলে ঘোষণা করা হয়।

গত বছরের আগস্ট মাসে শিখদের জন্য পৃথক রাষ্ট্র খালিস্তানের দাবি নিয়ে সরব হয়েছিলেন “শিখ ফর জাস্টিস” এর নেতারা। ২০২০ সালে লালকেল্লায় স্বাধীনতা দিবসে খালিস্তানি পতাকা তোলার হুমকিও দিয়েছিল উক্ত সংগঠনটি। লালকেল্লায় খালিস্তানের পতাকা উত্তোলনকারীকে ১ লক্ষ ২৫ হজার মার্কিন ডলার পুরস্কার দেওয়ার বিতর্কিত বিজ্ঞাপনও দিয়েছিল তারা! এবার মহারাষ্ট্র এবং পশ্চিমবঙ্গকে নিয়ে আরো একবার বিতর্কিত দাবি পেশ করে বসলো খালিস্তান পন্থী সংগঠনটি।