ক’রোনা হয়েছে মরতে যাচ্ছি, স্ত্রীর কাছে নাটক করে প্রেমিকার সাথে চুটিয়ে প্রেম যুবকের

স্বামী তার স্ত্রীকে ছেড়ে দেওয়ার জন্য অথাৎ তার স্ত্রীকে ডিভোর্স দেওয়ার জন্য কত ধরনের উপায় বার করে থাকে। কিন্তু মুম্বাইয়ের নভি এলাকার একজন যুবক তার স্ত্রীকে ছেড়ে গিয়ে তার প্রেমিকার সাথে বসবাস করার জন্য। সিনেমার মতো এক নাটকীয়তা তৈরি করল যা সব সিনেমা পরিচালকদের হার মানিয়ে দেবে। সেই যুবক একদিন তার স্ত্রীকে এসে বলেন, তার করোনা পজিটিভ হয়েছে। তিনি আর তার সাথে থাকতে পারবেননা ,এই বলে বাইক নিয়ে বাড়ি ছেড়ে বেরিয়ে যায়। তার স্ত্রীকে তাকে অনেকবার থামানোর চেষ্টা করেছিল কিন্তু তিনি কোনো কিছুই মানেনি, তাড়াহুড়ো করে বাইক নিয়ে চলে যান।

স্ত্রী নিরুপায় হয়ে তার জামাইবাবুকে এই সমস্ত ঘটনা জানান এবং তার জামাইবাবু পুলিশের কাছে গিয়ে মিসিং ডায়েরি করে সেই যুবকের। কিন্তু যুবককে খুঁজে পাওয়া যায় না কারণ সেই যুবক তার মোবাইল ফোনটি সুইচ অফ করে রেখে দিয়েছিল, সন্ধান পাওয়া দুষ্কর হয়ে উঠেছিল পুলিশের পক্ষে। পরে হঠাৎ একদিন যুবক তার ফোনটি সুইচ অন করে এবং তখনই পুলিশ তার মোবাইল ট্র্যাক করে পৌঁছে যান ইন্দোরে। সেখানে গিয়ে পুলিশ দেখতে পান তিনি তার নাম বদলে তার প্রেমিকার সাথে ঘর ভাড়া করে আছেন। অর্থাৎ তখনই পুলিশের কাছে পরিষ্কার হয়ে যায় বিষয়টি। তিনি তার স্ত্রীকে মিথ্যে কথা বলে তার প্রেমিকার সাথে ঘর বাধা জন্যই এই সিনেমার মতো নাটক তৈরি করেছিল।

পুলিশ যখন যুবককে জিজ্ঞেস করে তিনি এই নাটকটি কেন করেছেন তখন যুবক বলেন যে, তিনি তার স্ত্রীর সাথে আর থাকতে পারবেননা এবং সেই দায়িত্ব বেরিয়ে আসতে পারছিলেননা। এদিকে তিনি তার প্রেমিকাকে খুবই ভালোবাসেন তিনি তার সাথে ঘর বাঁধতে চান।এরজন্য তিনি বাধ্য হয়েছিলেন কাজটি করতে।তবে পুলিশ অবশেষে তাকে তার স্ত্রীর কাছে ফেরত পাঠিয়ে দিয়েছেন।