চীনের সমর্থনে কাশ্মীর ৩৭০ ফিরে পাবে, দাবি ফারুক আব্দুল্লার, “দেশদ্রোহিতা”র তকমা সম্বিত পাত্রের

“চীনের সহায়তায় জম্বু কাশ্মীর আবার তার পুরনো মর্যাদা ফিরে পাবে”, চিনা আগ্রাসনকে সমর্থন করে এমনই বিতর্কিত মন্তব্য করে বসলেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহ। তবে তার এই মন্তব্যের পাল্টা উত্তর দিয়েছেন বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্র। ফারুক আব্দুল্লাহের বিরুদ্ধে সরাসরি রাষ্ট্রদোহীতা অভিযোগ তুলে তিনি বলেছেন, দেশের প্রতি একজন সাংসদের এখানে মন্তব্য একইসঙ্গে দুঃখজনক এবং উদ্বেগজনক।

রবিবার উপত্যকা অঞ্চলের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুক আব্দুল্লাহ সংবাদমাধ্যমের কাছে একটি সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে বলেছিলেন, কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা বিলোপ প্রসঙ্গে কেন্দ্র সরকার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছেন, তা কোনোভাবেই সমর্থন করে না চীন। লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনাবাহিনীর আগ্রাসন আসলে সেই ৩৭০ ধারা বিলোপের ফলশ্রুতি। তিনি এও বলেন, চীনের সহায়তাতেই কাশ্মীরে আবারও ৩৭০ ধারা ফিরে আসবে।

তার এই বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে বিজেপির মুখপাত্র সম্বিত পাত্রের বক্তব্য, ফারুক আব্দুল্লাহের মতে কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপের কারণেই সীমান্ত আগ্রাসনের চেষ্টা চালাচ্ছে চীন। উপত্যকা অঞ্চলে প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী আসলে চীনের এই আগ্রাসন নীতিকেই সমর্থন করছেন। চীনের ভারতীয় ভূখন্ড দখলের প্রক্রিয়াকে ন্যায় সঙ্গত বলে মনে করেন তিনি। দেশের জন্য যা অত্যন্ত উদ্বেগজনক।

ফারুক আব্দুল্লাহকে সরাসরি “রাষ্ট্রদোহী” হিসেবে সম্বোধন করে তিনি বলেছেন, দেশের কোনো গণতান্ত্রিক পদ্ধতি সম্পর্কে আপত্তি থাকলে‍, তা জানানো কোনো অপরাধ নয়। তবে, তার জন্য অন্য দেশের সাহায্য প্রার্থনা করা নিন্দনীয় এবং রাষ্ট্রদোহিতার বহিঃপ্রকাশ। উল্লেখ্য, এর আগেও ফারুক আব্দুল্লাহ এই ধরনেরই এক বিতর্কিত মন্তব্য করে বলেছিলেন, কাশ্মীরের উচিত চীনের সঙ্গে হাত মেলানো। তার এই মন্তব্যের ঘোর বিরোধিতা করেছেন সম্বিত পাত্র।