সন্ধ্যা হতেই শীত, দিনে গরম, চলছে আবহাওয়ার খামখেয়ালি, ফের ঠান্ডা পড়া নিয়ে যা বললো হাওয়া অফিস

পৌষেই বাঙালির শীতের আমেজে ভাটা পড়েছে! বিগত প্রায় এক সপ্তাহেরও বেশি সময় ধরে শীতের তুলনায় গরমের অস্বস্তিকর অনুভূতিই যেন ফিরে এসেছে। আগামী ১২ই জানুয়ারি পর্যন্ত আবহাওয়ার এইরূপই বহাল থাকছে। মকর সংক্রান্তির আগে বাংলার তাপমাত্রা নিচের দিকে নামার কোনো সম্ভাবনা নেই বলেই জানাচ্ছে আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর। তবে ১২ই জানুয়ারি থেকে অবশ্য বাংলায় পুনরায় শীত ফিরে আসার সম্ভাবনা রয়েছে।

বিগত কয়েকদিনের মতোই সোমবারেও আবহাওয়ার বিশেষ পরিবর্তন ঘটছে না। রাতে এবং সকালের দিকে শীতের আমেজ অনুভূত হলেও বেলা গড়ার সঙ্গে সঙ্গেই তাপমাত্রার পারদ উপরের দিকে উঠছে। আগামী দুইদিনও এরকমই আবহাওয়া থাকবে। তবে সংক্রান্তি থেকে অবশ্য তাপমাত্রার পারদ অন্তত দুই থেকে তিন ডিগ্রি নিচে নামার সম্ভাবনা রয়েছে। তবে এখনই জাঁকিয়ে শীত পড়ার কোনো সম্ভাবনা নেই বলেই জানানো হয়েছে।

এদিকে ঘূর্ণাবর্তের জেরে তামিলনাড়ু এবং পন্ডিচেরিসহ দক্ষিণ ভারতের বিভিন্ন রাজ্যে বৃষ্টির সম্ভাবনা দেখা দিয়েছে। বাংলায় শীত প্রবেশের পথে বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছে পশ্চিমী ঝঞ্ঝা। পশ্চিমী ঝঞ্ঝার প্রভাবে উত্তরে হাওয়ার গতিপথ রুদ্ধ হচ্ছে। এদিকে আবার পূবালী হাওয়ার দাপটে বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ বাড়ছে। ফলে রাজ্যের প্রায় সর্বত্রই অস্বস্তিকর আবহাওয়া বজায় থাকছে।

আলিপুর আবহাওয়া দপ্তর সূত্রে খবর, সোমবার শহরের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩০.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস থাকবে। স্বাভাবিকের থেকে যা অন্তত পাঁচ ডিগ্রি বেশি। ন্যূনতম তাপমাত্রা অন্তত ২০.৯ ডিগ্রি সেলসিয়াস রেকর্ড করা হয়েছে। স্বাভাবিকের থেকে যা প্রায় ৭ ডিগ্রি বেশি। এদিন কলকাতা শহরের সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ১৯.৬ ডিগ্রী সেলসিয়াস। বাতাসে জলীয়বাষ্পের পরিমাণ সর্বোচ্চ ৯৬ শতাংশ থেকে সর্বনিম্ন ৪০ শতাংশের আশেপাশে থাকছে। অতএব আবহাওয়াজনিত অস্বস্তি আজও বজায় থাকছে।