এখনো দক্ষিণী ছবিতে অডিশন দিতে ভ’য় লা’গে, কা’র’ণ জানালেন রাধিকা

ক্যারিয়ার শুরুর পূর্বে তিনি ভেবেছিলেন যে তিনি পুনে থেকে মুম্বাই তে এসে থাকবেন। প্রত্যেকের কাছে তাকে অনবরত না শুনে যেতে হয়। অভিনয়কে ক্যারিয়ার হিসেবে বেছে নেওয়ার কারণে তাকে কেউ কখনো উৎসাহ দেয় নি। নিজের প্রচেষ্টায় আছে তিনি একটি জায়গা তৈরি করেছেন। বড্ডো সাহসী অভিনেত্রী তিনি।তার ছক ভাঙা অভিনয়ের মাধ্যমে তিনি দর্শকদের মনে বিরাট একটি জায়গা তৈরি করে নিয়েছেন। রাধিকা কোন সটার কিড ছিলেন না।

তার বাবা-মা ভাবতেন তাকে ডাক্তার করবেন। কিন্তু তার মনে মনে অভিনেত্রী হওয়ার ইচ্ছাটা অনেক ছোটবেলা থেকেই ছিল। মুম্বাইতে এসে রাধিকাকে ছোটখাটো কাজ শুরু করেছিলেন। তারপর দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রি থেকে তার ফোনে একটি ফোন আসে এবং তাকে হোটেলে ডেকে পাঠানো হয়। এক বড় মাপের পরিচালকের অফিস থেকে তার ফোনে ফোন আসে এবং তাকে হোটেলে ডেকে পাঠানো হয়। বিষয়টি তার কাছে বেশ কিছুটা অদ্ভুত লাগার পরও তিনি অডিশন দিতে চান এবং সেই হোটেলে গিয়ে দেখেন হোটেলে থাকার ব্যবস্থা বড্ডা অপরিষ্কার। তিনি বিরক্তি প্রকাশ করায় খুব জলদি তার অডিশন এর ব্যবস্থা করা হয়। রাধিকা বলেন সেই পরিচালক তার সাথে আরও 10 12 জনকে নিয়ে রাধিকার কাছে যান।

রাধিকা বলেন সেই পরিচালক তাকে একটি পোশাক দেন এবং সেই পোশাক পড়ে তাকে অদ্ভুত অঙ্গভঙ্গি করছে বলেন। সেখানে রাধিকার একটু সন্দেহ হয়।রাধিকা বলেন যে তাকে সরাসরি শারীরিক নিগ্রহের শিকার হতে হয়নি বলে তিনি অডিশন টি যেকোনো রকমের শেষ করেন। রাধিকা বলেন অডিশনের পরে পরিচালক সেখান থেকে চলে যায় এবং আরো দশ বারোজন এসে তার শরীরের মাপ নিতে শুরু করে সেটাও নাকি অডিশন এরই একটি অংশ। সেই প্রথম তিনি দক্ষিণী ইন্ডাস্ট্রিতে অডিশন দিয়েছেন। তার পরে তার সেই ইন্ডাস্ট্রির সম্পর্কে একটি খারাপ ধারণা তৈরি হয়। তার পরেও রাধিকা অনেক দক্ষিণী ছবিতে অভিনয় করেন।কিন্তু সেই দিনের অডিশনের কথা তিনি প্রায়ই সাক্ষাৎকারে বলেন এবং সেই কথা মনে পড়লে তার গা আজও শিউরে ওঠে ভয়েতে।