স্যাটেলাইটের মাধ্যমে নজর, মার্কিন সেনাঘাঁটিতে মিসাইল হামলার প্রস্তুতি ইরানের! যুদ্ধের আশঙ্কা

প্রতীক ছবি

দিন যাচ্ছে সম্পর্ক আরও খারাপ হয়ে যাচ্ছে আমেরিকা ও ইরানের মধ্যে, কারণ একদিকে জেনারেল সোলেমানির মৃত্যু সাথে পরমাণু চুক্তি থেকে সরে যাওয়া আমেরিকার, যেটা যুদ্ধের দিকে আরও দুই দেশকে অগ্রসর করে নিচ্ছে, আমেরিকা আসলে একতরফা ভাবে সড়ে গিয়েছে পরমাণু চুক্তি থেকে, উতান যে সোলেমানির মৃত্যুর পরে, অনেকটাই ক্ষুব্ধ হয়ে আছে আমেরিকার ওপরে সেট আকিন্তু স্পষ্ট। তাই মার্কিন সেনা ঘাটিতে যখন তখন হামলার একটা আশঙ্কা করা হচ্ছে।

আসলে কাতারের সংবাদ মাধ্যমের দ্বারা জানা গেছে, ইরান এখন হামলার জন্য তৈরী হচ্ছে। তারা কাতারের একটি বায়ুসেনা ঘাটিতে নজর রাখছে, সেটার নাম হল আল উদেইদ। সেখানে ইরান তাদের স্যাটালাইটের মাধ্যমে নজর রাখছে, কিন্তু তাদের আসল কারণ, লক্ষ্য আলাদা, সেটা হল কাতার সেনা বাহিনীর সাথে সেখানে আছে আমেরিকার সেনা বাহিনী, তাদের ওপরেই এখন হামলার ছক কষছে ইরান, তাই তাদের ওপরে নজর ইরানী স্যাটালাইটের মাধ্যমে। এখন আশঙ্কা করা হচ্ছে, হয়ত মিসাইল হামলা যখন তখন চালাতে পারে ইরান।

এদিকে মাই পম্পেও জানিয়েছেন, যিনি আসলে মার্কিন বিদেশ সচীব, তিনি বলেন, ইরানের স্যাটালাইট ব্যালেস্টিক ক্ষেপণাস্ত্র প্রকল্পের অন্তর্গত। ইরানের ক্ষেপণাস্ত্র গত কয়েকদিন আগেই আছড়ে পরে আরব আমির শাহির আল ধাফরা বিমান ঘাটির কাছে। আর যখন আছড়ে পরে, তখন সেই বিমান ঘাটিতে ছিল ভারতীয় পাইলটেরা ও তাদের রাফাল। তবে তাদের কোনো ধরনের ক্ষতি হয় নি। এখন সূত্রের মাধ্যমে জানা যাচ্ছে আমেরিকার ওপরে হামলা চালানোর জন্য ইরান সব ধরনের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে, তারা বিভিন্ন মহড়া থেকে শুরু করে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করতে শুরু করেছে, আর সেই কারণেই আমেরিকা এখন সেই সবের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে।