‘সমলি’ঙ্গের বিবাহের জেরে সংক্রমণ বেড়েছে’‌, এই মন্তব্য করা ধর্মগুরুই ক’রোনা আক্রান্ত

“সমলিঙ্গদের বিবাহের কারণে ভগবান রুষ্ট হয়েছেন। তারই অবশ্যম্ভাবী ফলাফল করোনা”! এমনই বিতর্কিত মন্তব্য করেছিলেন ইউক্রেনের যে মৌলবাদী ধর্মগুরু, তার বক্তব্য অনুসারে আজ তিনিই ভগবানের রোষের শিকার। সম্প্রতি, তিনি নিজেই করোনা সংক্রমিত হয়ে পড়েছেন। তার বিতর্কিত মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে অনেকেই তার বিরুদ্ধে উপযুক্ত পদক্ষেপের দাবি জানিয়েছিলেন।

তবে ভাগ্যের নির্মম পরিহাসে, প্রকৃতিই তার মৌলবাদী মনোভাবের যথাযোগ্য শাস্তি দিল। একানব্বই বছর বয়সী বিশপ আজ নিজেই করোনা সংক্রমিত। তার গোঁড়া মনোভাবের মূলে আঘাত করার জন্য এই যথেষ্ট ছিল। সূত্রের খবর, ইউক্রেনের অর্থডক্স চার্চের প্রধানকে প্যাট্রিয়ার্ক ফিলারেট নামে সম্বোধন করা হয়। এই চার্চেরই একানব্বই বছর বয়সী ওই ধর্মগুরু মার্চ মাসে একটি সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে, তার মৌলবাদী, গোঁড়া মনোভাবের পরিচয় দিয়েছিলেন।

তিনি, সমলিঙ্গ বিবাহকে অপরাধ বলে মনে করেন। এমনকি ভগবানের দোহাই দিয়ে বলেছিলেন, সমকামীদের উপর ভগবানের অভিশাপ হিসেবে নেমে এসেছে করোনা। সমলিঙ্গ বিবাহের জন্যই এই মহামারীর পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। উল্লেখ্য, ধর্মগুরু এহেন মন্তব্যের জেরে বিতরকের ঝড় বয়ে গিয়েছিল প্রান্তিক যৌনতার মানুষদের মধ্যে।

অনেকেই ধর্মগুরুর এই মন্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে প্রকাশ্যে ক্ষমা চাওয়ার দাবি জানিয়েছিলেন। এমনকি ধর্মের দোহাই দিয়ে বিদ্বেষ ছড়ানোর অপরাধে, তার বিরুদ্ধে উপযুক্ত পদক্ষেপ গ্রহণ করার কথাও বিবেচনা করা হচ্ছিল। তবে তার আগেই, প্রকৃতির কোপে করোনা আক্রান্ত হয়ে পড়লেন তিনি। বর্তমানে নিউমোনিয়ায় আক্রান্ত হয়ে ফুসফুসের সংক্রমণে ভুগছেন।