বাড়ছে সংক্রমণ, শনি-রবিবার লকডাউন ও নাইট কার্ফু এই জেলায়

মহারাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি ক্রমে লাগামছাড়া গতিতে বেড়েই চলেছে। এই পরিস্থিতি সেই রাজ্যের প্রশাসনকে রীতিমতো ভাবিয়ে তুলেছে। করোনা সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণে আনতে ফের নাইট কার্ফু ও সপ্তাহান্তে লকডাউনের পথে হাঁটছে মহারাষ্ট্র সরকার। মহারাষ্ট্রের নগরোন্নয়ন মন্ত্রী একনাথ শিন্ডে রবিবার সন্ধ্যাবেলা একটি বিশেষ ঘোষণা মারফত জানিয়ে দিলেন, আগামী সপ্তাহ থেকে রোজ রাত ৯টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত নাইট কার্ফু জারি থাকবে অরঙ্গাবাদে।

তার সঙ্গেই তিনি জানিয়েছেনকরণা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে আগামী সপ্তাহ থেকেই সপ্তাহান্তে লকডাউনও জারি করা হলো। এর ফলে স্কুল, কলেজ, বিয়েবাড়ির হল ইত্যাদি বন্ধ রাখা হবে। তার সঙ্গেই জেলার বিখ্যাত অজন্তা ও ইলোরাও সপ্তাহান্তে বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। প্রশাসনের এমন সিদ্ধান্তের কারণে চলতি সপ্তাহ থেকেই শনি-রবিবার সমস্ত বাজার, দোকানপাট বন্ধ রাখা হবে।

তবে লকডাউন জারি থাকলেও অবশ্য জরুরী পরিষেবা বন্ধ হবে না বলেই জানানো হয়েছে। বিয়েবাড়ির হল বন্ধ থাকলেও রেজিস্ট্রি বিয়ের ক্ষেত্রে কোনো বাধা দেওয়া হয়নি। প্রতি সপ্তাহের শনি এবং রবিবার সিনেমা হল, শপিং মল বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এদিকে প্রতিদিন রাত ৯টা থেকে ভোর ৬টা পর্যন্ত নাইট কার্ফু জারি করা থাকলেও অবশ্য হোটেল-রেস্তোরাঁ চালু রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

রাত ১১টা পর্যন্ত মিলবে ফুড ডেলিভারির পরিষেবাও পাবেন গ্রাহক। হোটেল রেস্তোরা চালু থাকলেও সিটিং ক্যাপাসিটির অর্ধেক নিয়ে রাত ৯টা পর্যন্ত তা খোলা রাখা যাবে বলে জানানো হয়েছে। সব মিলিয়ে ক্রমবর্ধমান করোনা পরিস্থিতি নিয়ে চিন্তিত প্রশাসন মহামারীর সংক্রমণ এড়াতে ফের নাইট কারফিউ এবং লকডাউনের পথে হাঁটছে।