লাদাখ সীমান্তে উড়ছে ভারতীয় যুদ্ধবিমান, LAC-তে চূড়ান্ত উত্তেজনা

লাদাখ সীমান্তের প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় ভারত-চীন সীমান্ত উত্তেজনা বেড়েই চলেছে। পরিস্থিতি বিবেচনা করে উভয় রাষ্ট্রই প্রকৃত নিয়ন্ত্রণরেখায় নিজেদের সামরিক শক্তি আরো মজবুত করে তুলছে। সূত্রের খবর, প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখার ওপারে চীনের মলডো ভূখণ্ডে পিপলস লিবারেশন আর্মির ক্যাম্পের সংখ্যা বাড়ছে। এদিকে, ভারতীয় সেনাবাহিনীও তাদের সেনা সংখ্যা বৃদ্ধি করে চলেছে।

ফলে সীমান্ত পরিস্থিতি বিবেচনা করলে এটা বেশ স্পষ্ট বোঝা যায়, যুদ্ধের সম্ভাবনা কোনো মতেই উড়িয়ে দিচ্ছে না উভয় প্রতিবেশী রাষ্ট্র। উল্লেখ্য, মস্কোয় আয়োজিত একটি বৈঠকে অংশ নেওয়ার উদ্দেশ্যে রাশিয়া সফরকালীন ভারতের প্রতিরক্ষামন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের সাথে চীনের প্রতিরক্ষা মন্ত্রী ওয়েই ফেংহে সীমান্ত সম্পর্কিত আলোচনার উদ্দেশ্যে বৈঠকে বসেন।

তবে এই বৈঠকে বিশেষ লাভ হয়নি। বৈঠকের পরই উভয় রাষ্ট্র পরস্পরের প্রতি কার্যত হুঁশিয়ারি দিয়ে জানিয়েছে, সীমান্ত থেকে তারা তাদের সেনা সরাবে না। এদিকে, সীমান্তে চীনা সেনাবাহিনী তৎপরতা লক্ষ্য করে, নজরদারি আরো বাড়িয়েছে ভারতীয় সেনাবাহিনী। রবিবার সকাল থেকে সীমান্ত পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে লাদাখ সীমান্তে টহল দিচ্ছে বায়ু সেনা বিভাগের বিমান।

এদিকে, দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে সেনাদের প্রয়োজনীয় যাবতীয় জিনিস সীমান্তে পৌঁছানোর ব্যবস্থা করা হচ্ছে। প্রকৃত নিয়ন্ত্রণ রেখায় চিনা সেনাবাহিনীর কার্যকলাপের প্রতি নজর রাখতে প্যাংগং এলাকার উত্তর ও দক্ষিণ অংশে ভারতীয় সেনার সংখ্যা বাড়ানো হয়েছে। ভারতীয় সেনাবাহিনী সূত্রের খবর, লাদাখ সীমান্তে চীনা সেনা ক্যাম্প গুলির উপর নজরদারি চালাতে লাদাখের আকাশে টহল দিচ্ছে ভারতীয় যুদ্ধবিমান। যেকোনো সময়েই লাদাখে যুদ্ধ পরিস্থিতির সৃষ্টি হতে পারে।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন