পর্দা ফাঁস ভারতীয় রেলের, নিজেদের টাকায় কিনতে হয়েছে টিকিট, জানালো গুজরাট ফেরত শ্রমিকরা

নিজের টাকাতেই টিকিট কিনে ঘরে ফিরতে হয়েছে তাঁদের, জানালেন গুজরাট থেকে ফেরা শ্রমিকরা, প্রথম থেকেই পরিযায়ী শ্রমিকদের ঘরে ফেরাতে উদ্যোগ নিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। তাই তো গত কয়েকদিন ধরে সেই শ্রমিকদের ফেরানো নিয়ে তোড়জোড় শুরু হয়েছে। যদিও প্রথম পর্বে কেন্দ্রীয় রেলমন্ত্রক নিজেদের উদ্যোগে তাঁদের ঘরে ফেরাবে বলেছিল কিন্তু তারপরেই টিকিট কেটে ফিরতে হবে বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। তারসঙ্গে অতিরিক্ত ফি দিতে হবে বলেও জানানো হয়েছিল। কিন্তু সরকারের তরফে পরিযায়ী শ্রমিকদের ভাড়া চাওয়া নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে।

গুজরাট থেকে ভিনরাজ্যের শ্রমিকরা নিজেদের ঘরে ফিরে যাচ্ছে, তারাই জানিয়েছেন যে নিজেদের গাঁটের কড়ি খরচা করে তাঁদের ফিরতে হচ্ছে বাড়িতে। টিকিট কেটে নিজেদের টাকাতেই তাঁরা পরিবারের কাছে ফিরছেন। রেলমন্ত্রক জানিয়েছিল শ্রমিক স্পেশাল ট্রেনের জন্য সরকার পরিযায়ী শ্রমিকদের ট্রেন ভাড়া নিয়ে বিতর্ক যেন কিছুতেই থামছে না। সরকার যতই দাবি করুক, শ্রমিকদের বাড়ি ফেরার ট্রেনে রেল মন্ত্রক ৮৫ শতাংশ ভরতুকি দিয়েছে, বাকি ১৫ শতাংশ দেবে রাজ্য সরকার, বাস্তব বলছে অন্য কথা। গুজরাট থেকে ইতিমধ্যেই বিভিন্ন রাজ্যে যাওয়ার ‘শ্রমিক স্পেশ্যাল’ ট্রেন ছেড়েছে।

সব ট্রেনের যাত্রীরাই কমবেশি দাবি করছেন, তাঁদের ট্রেনের ভাড়া নিজেদেরই মেটাতে হয়েছে। রাজ্য বা কেন্দ্র, কোনও সরকারই তাঁদের সাহায্যে এগিয়ে আসেনি।ভাড়ার ৮৫ শতাংশ মকুব করে দিয়েছে রেল। বাকি ১৫ শতাংশ দিতে হবে রাজ্য সরকারকে। রেল দপ্তর শ্রমিকদের খাবার এবং পানীয় জলও বিনামূল্যে দেবে। যে ১৫ শতাংশ ভাড়া রাজ্যের কাছে চাওয়া হয়েছে তারা চাইলে নিজেরাই সেই ভাড়া মিটিয়ে দিতে পারে। তবে সত্যতা যাচাই করে জানা যায় শ্রমিকরাই তাঁদের ভাড়া দিয়েছে। এবং প্রত্যেকেই ৬৯০ টাকা করে টিকিটের দাম দিয়েছে। তার মধ্যেই জল ও খাবার দিয়েছে।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন