তাড়াতাড়ি করোনা যুদ্ধে জয় করবে ভারত, সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে বার্তা চিনের

গোটা দেশে করোনা আতঙ্ক। এই পরিস্থিতিতে পুরো দেশ লকডাউন ঘোষণা করেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। নয়াদিল্লিতে চিনা দূতাবাসের তরফে এক বিবৃতিতে চিন আশা প্রকাশ করেছে, করোনার সংক্রমণ থেকে আগেভাগে মুক্তি পাবে ভারত। করোনা ভাইরাসের লড়াইয়ে ভারত চিনের পাশে দাঁড়িয়েছিল, তা নিয়ে কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছে চিন।

বুধবার নয়াদিল্লির চিনা দূতাবাসের মুখপাত্র জি রং একটি বিবৃতিতে বলেছেন, চিনের সংস্থাগুলি ভারতে অনুদান দিতে শুরু করেছে। ভারত মনে করলে চিন আরও সাধ্যমতো সাহায্যের জন্য প্রস্তুত। তিনি আরও বলেন, ভারত চিনকে মেডিক্যাল সামগ্রী দিয়ে সাহায্য করেছিল। তা ছাড়া নানা ভাবে ভারতের মানুষও চিনের যুদ্ধে পাশে দাঁড়িয়েছিল। এর জন্য ভারতবাসীকে আমরা ধন্যবাদ জানান তিনি।

পাশাপাশি জি রং বলেন, ভারতীয়রা এই যুদ্ধে অনেক আগেই জয়লাভ করবে। ভারত এবং অন্যান্য দেশের সঙ্গে চিনও এই মহামারি রুখতে জোটবদ্ধ হয়ে কাজ করবে। জি-২০, ব্রিকসের মতো সম্মেলনের মাধ্যমে করোনা ভাইরাসের মোকাবিলায় পারস্পারিক সাহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দেবে।

স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞরা মনে করেন, কূটনৈতিক সম্পর্কে যেমনই থাক না কেন, বিশ্ব জোড়া মহামারির সময়ে চিনের এই বার্তা ইতিবাচক এবং সদর্থক। করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নয়াদিল্লির চিনকে সাহায্য করতে চাওয়া এবং একই ভাবে বেজিংয়েরও ভারতের পাশে দাঁড়ানোর বাতাবরণ, ভবিষ্যতে কূটনৈতিক সম্পর্কেও ছাপ ফেলবে বলেও মনে করছেন কূটনীতিবিদরা।