প্যাঙ্গং লেক দখলে রাখতে, চীনকে হটাতে ইন্টারসেপ্টর বোট মোতায়েন করবে ভারত

দীর্ঘ কয়েক মাস পরেও প্যাংগং লেকের আশা এখনো ছাড়তে পারেনি চীনের পিপলস লিবারেশন আর্মির সদস্যরা। ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী সূত্রে খবর, লাদাখের এই প্রবল ঠান্ডার মধ্যেও প্যাংগংয়ের পাহাড়ি হ্রদের জলে এখনো টহল দিয়ে বেড়াচ্ছে চীনের ইন্টারসেপ্টর বোট। উত্তর এবং দক্ষিণ প্যাংগং দখলের আশায় দিবারাত্র কড়া প্রহরা রেখে চলেছে চীনা ড্রাগনের দল। তবে ভারতীয় সেনাবাহিনীও প্রতিবেশী রাষ্ট্রকে ভারতীয় ভূখণ্ডের একচুল অংশ ছাড়তে নারাজ।

চীনের ইন্টারসেপ্টর বোটের গতিবিধি রুখতে এবার ভারতের তরফ থেকেও প্যাংগংয়ে ইন্টারসেপ্টর বোট পাঠানো হতে চলেছে। যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এ ধরনের বোট প্রস্তুত করার জন্য ভারতের ডিফেন্স রিসার্চ ডেভলপমেন্ট অর্গানাইজেশনকে বরাত দিয়েছে ভারতের প্রতিরক্ষা মন্ত্রক। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির “আত্মনির্ভর ভারত” প্রকল্প অনুসারে সম্পূর্ণ দেশীয় প্রযুক্তিতেই এই বোট প্রস্তুত করা হতে চলেছে বলে জানানো হয়েছে।

উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ অনুসারে “মেক ইন ইন্ডিয়া” প্রকল্পের আওতায় কমব্যাট এয়ারক্রাফ্ট, মিসাইল থেকে শুরু করে যাবতীয় প্রতিরক্ষা মূলক অস্ত্রশস্ত্র এখন দেশেই তৈরি হচ্ছে। তারমধ্যে নতুন সংযোজন হলো এই ইন্টারসেপ্টর বোট। প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের নির্দেশে গোয়া শিপইয়ার্ড লিমিটেড ইতিমধ্যেই ইন্টারসেপ্টর বোট তৈরি করার কাজ শুরু করে দিয়েছে। বোট প্রস্তুত করার কাজ প্রায় শেষের দিকে বলে জানানো হয়েছে। এখন শুধু ট্রায়ালের পর সেগুলিকে লাদাখে পাঠানোর তোড়জোড় চলছে।

লাদাখের দায়িত্বপ্রাপ্ত নর্দার্ন আর্মি কম্যান্ডার লেফটেন্যান্ট জেনারেল বিএস জাসওয়াল জানিয়েছেন, প্যাংগং লেকের ফিঙ্গার পয়েন্ট ৪ থেকে প্রায় ১০ কিলোমিটার পূর্ব পর্যন্ত টহল দিয়ে বেড়াচ্ছে চীনের সৈন্য বাহিনী। এর ফলে পেট্রোলিং পয়েন্ট গুলিতে ভারতীয় সেনাবাহিনীকে যথেষ্ট অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছে। ওই অঞ্চল থেকে চীনা সৈন্যবাহিনীকে হঠাতেই এবার ইন্টারসেপ্টর বোট লাদাখের উদ্দেশ্যে পাড়ি দিচ্ছে।