১০ হাজার ফিট উপরে বিশ্বের দীর্ঘতম টানেল তৈরি করল ভারত, শুভসূচনা করলেন মোদী

বিশ্বের সবচেয়ে দীর্ঘ টানেলের উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী। যার নাম রাখা হয়েছে অটল টানেল। আর এই অটল টানেল যে বিশ্বের দরবারে এক বড় পর্যটন ক্ষেত্র হিসেবে জায়গা করে নিতে চলেছে তাতে নেই কোনো সন্দেহ। আর এবারেই অটল টানেল কেনো বিশ্বের দরবারে নিজের জায়গা দখল করবে সেটা জেনে নেওয়া যাক।

অটল টানেলের দৈর্ঘ্য ৯.০২ কিলোমিটার।
অটল টানেলের দুই মুখ- একটা নর্থ পোর্টাল, অন্যটা সাউথ পোর্টাল।
মানালি থেকে সাউথ পোর্টালের দূরত্ব ২৫ কিলোমিটার ।
টানেলে সারা দিনে ৩০০০ গাড়ি এবং ১৫০০ ট্রাক যাতায়াত করতে পারবে।
অটল টানেল অনেকটা অশ্বের ক্ষুরের আকৃতিতে তৈরি হয়েছে।
এছাড়াও SCADA নিয়ন্ত্রিত প্রযুক্তিকে কাজে লাগানো হয়েছে সুড়ঙ্গের ভিতরে কোনও অগ্নিসংযোগ বা অন্য কোনও অপ্রীতিকর ঘটনাকে যুদ্ধকালীন তৎপরতার জন্য।

সুড়ঙ্গের ভিতরে দুই লেনের রাস্তা, এছাড়াও দুই দিকে রয়েছে ফুটপাত।
সুড়ঙ্গের ভিতরে অক্সিজেনের মাত্রা-কে ঠিক রাখার জন্য সেমি-ট্রান্সভার্স প্রযুক্তি-কে কাজে লাগানো হয়েছে।
সুড়ঙ্গের ভিতরে প্রতি ২৫০ মিটার অন্তর রয়েছে সিসিটিভি ক্যামেরা বাতাসের মান যাচাই-এর জন্য ১ কিলোমিটার অন্তর মনিটারিং যন্ত্র বসানো হয়েছে।

সুড়ঙ্গের ভিতরে প্রতি ১৫০ মিটার অন্তর টেলিফোন রাখা রয়েছে এমার্জেন্সি কলের জন্য গোটা টানেল জুড়ে রয়েছ অগ্নি নির্বাপণের জন্য জলের পাইপ লাইন।
এছাড়াও প্রতি ৬০ মিটার অন্ত ক্যামেরাও বসানো হয়েছে সমস্ত কিছুকে নজরদারি করার জন্য।
মূল টানেলের নিচে রয়েছে একটি ছোট্ট টানেল, যেখানে একটি মাত্র গাড়ি একটা সিঙ্গল লাইনে যাবে।
এই ছোট টানেলটি তৈরি হয়েছে এমার্জেন্সি এক্সিটের জন্য টানেলের ভিতরে কোনও কারণে সেই আটকে গেলে এই এক্সিট টানেল দিয়ে বাইরে বেরিয়ে যেতে পারবে।