বাড়বে উপস্হিত বুদ্ধি, মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে, শুধু পাতে রাখতে হবে এই খাবার গুলি

বুদ্ধি একমাত্র সম্বল আমাদের জীবনে বেঁচে থাকার জন্য। বুদ্ধি দিয়ে কাজ না করলে যেকোনো জায়গায় আমাদের সেই কার্যসিদ্ধি হওয়া সম্ভব হয় না। বুদ্ধির দ্বারা যে কোন পরিস্থিতি থেকে বেরিয়ে আসা সম্ভব হয়। কিন্তু সকলের বুদ্ধি সমান হয় না। নিজের মগজে সমস্ত রকম প্রতিকূল পরিস্থিতির জন্য তৈরি করতে গেলে আমাদের সুষম আহার খেতে হবে।

এই প্রসঙ্গে বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন যে, খাবারের মধ্যে কুড়ি শতাংশ শর্করা এবং শক্তি মস্তিষ্কে যায়। ইমু সেস্ক এর কাজের অনেকটাই নির্ভর করে গ্লুকোজের মাত্রার ওপর। এমন কিছু খাবার রয়েছে যা মগজ এর ক্ষেত্রে প্রচন্ড পরিমানে গুরুত্বপূর্ণ। চলুন জেনে নেওয়া যাক সেই সমস্ত খাবারের তালিকা

লেবু আঙুর অথবা আনারস জাতীয় খাবার। এই খাবারে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি থাকে। আমাদের দুশ্চিন্তা অথবা অবসাদের মতো সমস্যায় ভীষণভাবে কাজে দেয় ভিটামিন সি। এতে অ্যালজাইমারস এবং ডিমেনশিয়ার এর মত রোগপ্রতিরোধের উপাদান পাওয়া যায়।

বাঙ্গালীদের মাছ খাওয়ার প্রতি একটি দুর্বলতা চিরকাল রয়েছে। মস্তিষ্কের ৬০% ফ্যাটের এর সাহায্যে তৈরি। যার অধিকাংশ ওমেগা-থ্রি জাতীয়। বড় বড় মাছ ওমেগা-থ্রি প্রচুর পরিমাণে থাকে। এটি স্মৃতিশক্তি বাড়াতে সাহায্য করে।

সকালবেলা যদি কফি খাবার অভ্যাস থাকে তাহলে সানন্দে খেতে পারে। কফির দুই প্রধান উপকরণ ক্যাফেইন এবং এন্টি-অক্সিডেন্ট মস্তিষ্কের ক্ষেত্রে খুবই ভালো। এতে নিউরোলজিক্যাল অনেকাংশে কমে যায়।

ডাক চকলেট যারা পছন্দ করেন তাদের স্মৃতিশক্তি অনেকটাই ভালো থাকে। ডাক চকলেট খেলে মন ও প্রফুল্ল থাকে।

ডিমের মধ্যে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন বি থাকে। এটি আমাদের ব্রেন ফাংশন ভালো করতে সাহায্য করে।

এছাড়া গ্রিন টি খেলে আমাদের ব্রেইন চাঙ্গা হয় এবং আমরা নতুন ভাবে কাজে এনার্জি পাই।