মর্গে নাক-আঙ্গুল খুবলে খেলো ইঁদুরের দল, হাসপাতালে বিক্ষোভ পরিবার পরিজনদের

ঘটনাটি ঘটেছে শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে যা একেবারে চমকে দিয়েছে সবাইকে। শিলিগুড়ির এক যুবক পাপাই মল্লিক , গতকাল দুপুরে আত্মহত্যা করে ঠিক তার পরেই তাঁর মরদেহ নিয়ে যাওয়া হয় জেলা হাসপাতালে ময়না তদন্তের জন্য। স্বাভাবিকভাবেই ময়নাতদন্তের পর যখন সেই মৃতদেহ পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় তখন সামনে আসে এই ঘটনা। পরিবারের দাবি যখন তাদের হাতে মরদেহ তুলে দেয়া হয় তখন দেহে পচন শুরু হয়েছে।

এরপরই পরিবারের তরফ থেকে ক্ষোভ উগরে দেওয়া হয় জেলা হাসপাতালে ওপর, এই নিয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানায়, স্বাভাবিকভাবেই এটি দুঃখজনক একটি ঘটনা কিন্তু হাসপাতালে রেফ্রিজারেটর দীর্ঘদিন বিকল হয়ে যাওয়ার কারণেই এমন ঘটেছে। তবে এই নিয়ে উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে এমনকি শিলিগুড়ি থানাকেও জানানো হয়েছে।

আলিপুরদুয়ার জেলার বীরপাড়া এলাকার বাসিন্দা এই পাপাই মল্লিক। তিনি শিলিগুড়িতে একটি বেসরকারি সংস্থায় কাজ করতেন,কিন্তু হঠাৎই গতকাল দেখা যায় তার ঘরে তার ঝুলন্ত দেহ।এরপরেই শিলিগুড়ি জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হলে চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করে। এরপরেই ময়নাতদন্তের পরে যখন পরিবার মৃতদেহ নিতে আসে তখনই তারা লক্ষ্য করে মরদেহের নাক নেই, কোথাও কোথাও বিভিন্ন ক্ষতের সৃষ্টি হয়েছে সেখান থেকে রক্ত পরছে, এরপরে পরিবারের সদস্যরা হাসপাতাল চত্বরে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে। তবে এই ঘটনা স্বীকার করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ, তারা জানায় দীর্ঘদিন থেকে হাসপাতালে রেফ্রিজারেটর খারাপ হওয়ার দরুন এই ঘটনা ঘটেছে। তবে হাসপাতালে উচ্চপদস্থ কর্তাদের এমনকি শিলিগুড়ি থানায় এই ব্যাপারে আর্জি জানানো হয়েছে।