গত ২০ বছরে আরও ৫ বার মহামারী ছড়িয়েছে চিন, বিস্ফোরক দাবি আমেরিকার

প্রতিবারের মতো এবারও এক বিষ্ফোরক মন্তব্য করে বসলো আমেরিকা। তারা এবার জানিয়ে দিল চিন গত ২০ বছরের মধ্যে এমন মহামারি ৫ বারের মতো ছড়িয়েছে। এটা এখন থামানো দরকার। নাহলে মানব জাতি ধ্বংস হয়ে যাবে। ইউ এস ন্যাশনাল সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার এমনটাই জানিয়েছে। তারা বলেছে চিনের দৌলতে মানব জাতিকে এই কষ্টের মধ্যে দিন কাটাতে হচ্ছে। রবার্ট সিকিউরিটি অ্যাডভাইজার। তিনি জানিয়েছেন, এখন চিনের বিরুদ্ধে গোটা বিশ্বকে এক হওয়া দরকার। মানুষের প্রাণ নিয়ে তারা ছিনিমিনি খেলছে, তাদের এবার উচিত শিক্ষা দেওয়া প্রয়োজন।

এদিকে হুঁ চিনের উহান মাংসের বাজার থেকেই যে করোনা ছড়িয়েছে সেটার মান্যতা দিয়েছে। এর আগে অবশ্য তারা স্পষ্ট জানায় নি, যে সি ফুডের মার্কেট থেকে করোনা ছড়িয়েছে কিনা, কিন্তু এবার স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছে হুঁ, সেই বাজার থেকেই করোনা ছড়িয়েছে। এর আগেই এই বাজারের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছিল, কিন্তু এবার হুঁ সেটার প্রমাণ দিয়ে দিয়েছে।

তাই এবার আমেরিকার তরফ থেকে বলা হয়েছে, তাহলে দেখাই যাচ্ছে ,চিন কি কি করে যাচ্ছে। গত ২০ বছরে ৫ বারের মতো চিন বড়ো বড়ো মহামারী ছড়িয়েছে। তারা মানুষকে বাঁচতে দিতে চায় না কোনোমতেই। এবার তাদের থামানো দরকার। প্লেগ, অ্যাভিয়েশন ফ্লু, সার্স, সোয়াইন ফ্লু, কোভিড ১৯। তারা মানব জাতিকে ধংস করতে উদ্যত হয়ে উঠেছে। রবার্ট এটাও বলেছে, চিনের দরকার হলে মার্কিন, চিকিৎসক বিজ্ঞানীদের পাঠাবে তারা। কিন্তু তারা এইসব কাজ বন্ধ করুক। তারা মানব জাতির চিন্তা করুক।

তবে বিভিন্ন জায়গা থেকে বিভিন্ন ভাবে মানুষ চিনের বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছে, অনেকে বলেছে ল্যাবে তারা এই ধরনের ভাইরাস তৈরী করেছে। অনেকে আবার বলছে, এই ভাইরাস বাদুড় জাতীয় কিছু থেকে এসেছে, কিন্তু সঠিকটা যে কি? কে জানে। এদিকে হুয়ের ওপরে ক্ষুব্ধ আমেরিকা তারা নাকি শুধু চিনের পক্ষেই কথা বলে, তাই তারা হুয়ের আর্থিক অনুদান বন্ধ করে দিয়েছে।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন