সারদা কাণ্ডে ভোটের মাঝেই ইডির খপ্পরে কুনাল-শতাব্দী, বাজেয়াপ্ত করা হলো সম্পত্তি

সারদা কাণ্ড নিয়ে ভোটের আগে মুখ পুড়লো রাজ্য সরকারের। সারদা চিটফান্ড-কাণ্ডে জড়িত থাকার অপরাধে এবার তৃণমূলের মুখপাত্র কুনাল ঘোষ এবং বীরভূমের তৃণমূল সাংসদ শতাব্দি রায়ের সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করলো ইডি। শনিবার ইডির তরফ থেকে একটি টুইট বার্তায় জানানো হয়েছে এই খবর। একই সঙ্গে সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেনের অন্যতম সহযোগী দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের সম্পত্তিও বাজেয়াপ্ত করেছে এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টর।

প্রসঙ্গত, কুনাল ঘোষ অবশ্য নিজে থেকেই সারদার দরুণ প্রাপ্ত অর্থ ইডির কাছে ফেরত দিতে চেয়েছেন। ইডির তরফ থেকে জানানো হয়েছে, কুনাল ঘোষের থেকে অন্তত তিন কোটি টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে। তবে শতাব্দি রায়ের থেকে কত টাকার সম্পত্তি বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে সে সম্পর্কে অবশ্য কোনো তথ্য এখনো পাওয়া।

প্রসঙ্গত, কুনাল ঘোষ এবং শতাব্দি রায় দুজনেই সারদা চিটফান্ড সংস্থায় কর্মরত ছিলেন। শতাব্দি রায় সারদার ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ছিলেন। সারদার গ্রুপ মিডিয়ার সিইও ছিলেন কুনাল ঘোষ। প্রসঙ্গত ভোটের মুখে ইডির এহেন পদক্ষেপে কার্যত গুঢ় ষড়যন্ত্র খুঁজে পাচ্ছে তৃণমূল। তৃণমূলের দাবি রাজনৈতিক প্রতিহিংসা চরিতার্থ করতেই এই ষড়যন্ত্র করছে বিজেপি শিবির।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, রাজনৈতিক মহলে কানাঘুষো শোনা যাচ্ছে সারদা চিটফান্ড সংস্থার সঙ্গে জড়িতদের বিরুদ্ধে ইডির পাশাপাশি সিবিআইও পদক্ষেপ গ্রহণ করতে চলেছে। এ প্রসঙ্গে তৃণমূলের রাজ্যসভার উপ দলনেতা সুখেন্দুশেখর রায় বলেছেন, বিরোধী রাজনৈতিক শিবিরগুলিকে নিয়ন্ত্রণে আনতে কেন্দ্রীয় সংস্থা গুলিকে ব্যবহার করছে বিজেপি শিবির। তবে রাজ্যের মানুষ তাদের উপযুক্ত জবাব দেবেন।