মাত্র 48 ঘন্টা, তীব্র বেগে ধেয়ে আসছে কালবৈশাখী, ক্ষতির মুখে পড়তে পারে রাজ্যের একাধিক জেলা !

করোনা আবহে আবার বিপদের অশনি সংকেত। এমনিতেই বৈশাখের শেষ লগ্নেও কিন্তু সেভাবে কালবৈশাখী দেখা যায়নি। কিন্তু এবার বড়সড় কালবৈশাখীর সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়ে দিল আবহাওয়া দফতর। আগামী ৪৮ ঘন্টার মধ্যেই সেইকালবৈশাখী আছড়ে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে বলেই সূত্রের খবর। উত্তরবঙ্গ ও দক্ষিণবঙ্গে বেশ কিছু জেলায় শিলাবৃষ্টির সঙ্গে ভারী বর্ষণের দাপট দেখা যেতে পারে। দক্ষিণ আন্দামান সাগর ও সংলগ্ন দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে নিম্নচাপের জন্য একটি ঘূর্নাবর্ত তৈরি হচ্ছে যার জেরে ঘূর্ণিঝড়ে সম্ভাবনাও রয়েছে।বৈশাখের দাবদাহেও কিন্তু সেভাবে গরমের দাপট নেই।

এখনও শীতের ভাব রয়েছে। গা শির শির করছে রাতের দিকে। গরমে যে অস্বস্তি থাকে তা এবছর কার্যত অধরা। যদিও করোনার প্রকোপের হাত থেকে রেহাই পেতে গরম আবশ্যক। কিন্তু এবছর সেভাবে গরম পড়েনি এখনও অবধি।
প্রসঙ্গত, এদিন শহর কলকাতায় আকাশে অল্প মেঘলা রয়েছে। যদিও আজই অল্প থেকে মাঝারি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। তাই তো সেভাবে গরম গায়ে লাগছে না। এককথায় যেন গরমেও বসন্তের হাওয়া।

কলকাতা আজ সকালে সর্বনিম্ন তাপমাত্রা ছিল ২৫.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিক। গতকাল বিকেলে সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৪.২ ডিগ্রি সেলসিয়াস যা স্বাভাবিকের থেকে এক ডিগ্রি কম। দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গেও ভারী বৃ্টিপাত সহ শিলা বৃষ্টি হতে পারে। একইসঙ্গে আগামী চারদিন অবধি বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে বেশ কয়েকটি জেলায়।আগামী কয়েক দিন ঝড় বৃষ্টির প্রবল সম্ভাবনা উত্তর-পূর্ব ভারতের রাজ্যগুলিতে। অসম, মেঘালয়, মিজোরাম, মনিপুর, নাগাল্যান্ড, ত্রিপুরাতে ঝড়-বৃষ্টির সম্ভাবনা। ঝড় বৃষ্টি হবে সিকিম ও উত্তরবঙ্গের জেলাগুলিতেও।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন