বাস্তবে মা’রা গিয়ে দেখলেন! কবর পর্যন্ত দেওয়া হলো, চললো কান্নাকাটি, আ’জ’ব কা’ন্ড করে বসলেন বৃদ্ধা

মৃত্যু এমন একটি বাস্তব আমাদের জীবনের জানতে আমাদের সকলেরই কষ্ট হয়। মৃত্যুর দিন কিভাবে আমাদের কাছে আসবে তা সকলের কাছে অজানা। তাই আলাদা ভাবে ওই দিনটি সম্পর্কে আমরা কিছু চিন্তা ভাবনা করি না। কিন্তু সম্প্রতি এমন একটি অবিশ্বাস্য ঘটনা ঘটে গেল যার ফলে, এবার আমরা হয়তো মৃত্যু নিয়ে আলাদা ভাবে চিন্তা ভাবনা করতে পারি।

সম্প্রতি একটি সংবাদ মাধ্যম থেকে জানা গেছে যে, মায়ারা আলোনজো নামে একজন মহিলা তার নিজের শেষকৃত্যের জন্য খানিকটা সেজেগুজে রিয়েসাল দেবার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন। মহিলার বয়স ৫৯ বছর। ঠিক যেভাবে শেষ যাত্রায় মানুষকে ফুল দিয়ে সাজানো হয় ঠিক সেইভাবে তিনি কয়েক ঘন্টা সেজে কফিনে শুয়ে ছিলেন।

শুধুমাত্র তাই নয়, যতক্ষণ তিনি কফিনের শুয়ে ছিলেন তার পাশে উপস্থিত বন্ধু এবং পরিবার-পরিজনরা শোক প্রকাশ করেছেন। এমনকি তারা চোখের জলে ওই মহিলাকে বিদায় জানিয়েছেন। তবে স্বাভাবিকভাবেই এর মধ্যে অভিনয় করতে গিয়ে কেউ কেউ হেসে ফেলেছেন। সম্পূর্ণ জনৈক ব্যক্তির মোবাইলে তুলে রাখা হয়েছিল।

সম্পূর্ণ ঘটনাটি তাকে সঙ্গ দেবার জন্য বন্ধুবান্ধব পরিবার এবং প্রতিবেশীদের আন্তরিকভাবে ধন্যবাদ জানিয়েছেন ওই মহিলা। তিনি যে তার স্বপ্ন বাস্তবায়িত করতে পেয়েছেন তার জন্য তিনি খুবই ধন্য বলে মনে করেছেন। আগামীকাল যদি তার মৃত্যু হয়ে যায় তাহলে তার আর কোন আক্ষেপ থাকবে না। তবে এখনই মারা যাবার সিদ্ধান্ত তার নেই। তবে এমন ঘটনা তিনি কেন ঘটালেন এই প্রশ্নের উত্তরে তিনি জানিয়েছেন যে, মহামারী তার জীবনকে একটি অন্য আঙ্গিকে দেখতে বাধ্য করেছিল। তাই তখন থেকেই তিনি ভেবেছিলেন যে নকল অন্তোষ্টিক্রিয়া তিনি পালন করবেন।