রান্না ক’রা ছাড়াও মাইক্রোওয়েভে যেসব কা’জ আ’প’নি করতে পা’র’বে’ন অ’না’য়া’সে! জানুন কিছু টি’প’স

মধ্যবিত্ত পরিবারের কাছে মাইক্রোওভেন এখন কোন বড় ব্যাপার নয়। সকলেরই বাড়িতে ছোট-বড় মাইক্রোওভেন থাকে রান্নাঘরে। তবে আমরা অর্থাৎ মধ্যবিত্ত পরিবারের মানুষেরা বেশিরভাগ মাইক্রোওভেন ব্যবহার করি খাবার গরম করার ক্ষেত্রে। আমরা অনেকেই জানিনা মাইক্রোওভেন ব্যবহার করে অনেক ছোট ছোট রেসিপি খুব সহজে তৈরি করা যেতে পারে। আজকে এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে চলুন জেনে নেওয়া যাক কি কি রেসিপি আপনি সহজে তৈরি করে ফেলতে পারবেন মাইক্রোওভেনে সাহায্যে।

ডিম পোচ তৈরি: অনেকেই গেছে ডিম পোচ ঠিক করে তৈরি করতে পারেন না। সকালের চটজলদি ডিম পোচ তৈরি করার জন্য আপনার দরকার মাইক্রোওভেন। পাউরুটির ওপরে বা ওভেনপ্রুফ একটি পাত্রে ডিম গুলো ভেঙ্গে নিতে হবে আগে। এবার ওভেন উচ্চতাপে দিয়ে 1 মিনিট রেখে দিতে হবে। তাহলেই আপনার মাইক্রোওভেন ডিম পোচ তৈরি হয়ে যাবে।

মধু তরল করা: সর্দি কাশি উপশমে মধু ব্যবহার করে থাকি আমরা অনেকেই। কিন্তু শীতকালে মধু বেশিরভাগ জমে যায়। এক্ষেত্রে মধুর নিচে একটি সংস্থার পড়ে তরলতা কমে যায় মধুর। মধুর নিচে জমে যাওয়া স্তরটিকে অত্যান্ত সহজে গুলিয়ে ফেলতে পারবেন আপনি শুধুমাত্র মাইক্রোওভেনে সাহায্যে। মধুর বয়ামের ঢাকনা খুলে একটি পাত্রে ঢেলে নিয়ে সামান্য কয়েক সেকেন্ড গরম করে ফেলুন মধু টিকে। ওভেন থেকে বের করে দেখবেন জমে যাওয়া স্তরটি সম্পূর্ণ তরল হয়ে গেছে।

মুড়ি অথবা বিস্কুট মুচমুচে তৈরি করতে পারেন: অনেক সময় মুড়ি অথবা বিস্কুটের প্যাকেট খোলা থাকলে মুচমুচে ভাব কমে যেতে পারে। সেগুলি খেতে আগের মত আর লাগেনা। ঘরে মাইক্রোবেন থাকলে এই সমস্যা থেকে সহজেই রেহাই পাবেন আপনি। উচ্চতাপে মাত্র এক মিনিট মুড়ি অথবা বিস্কুট মাইক্রোওভেনে রেখে দিলে আগের মত মুচমুচে হয়ে যাবে।

সহজে লেবুর রস বের করা সম্ভব: লেবু কাটার আগে অথবা কেটে দিয়ে রস বের করে নেবার আগে মাইক্রোওভেনে একটু গরম করে নিন। এতে লেবু খুব সহজেই চেপা যাবে এবং অনেক বেশি রস বের হবে লেবু থেকে।