কাশ্মীর সমস্যার সমাধান চেয়ে মোদিকে বার্তা ইমরানের

ভারতের সঙ্গে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থানে অঙ্গীকারবদ্ধ হতে চায় পাকিস্তান! ভারত সহ পৃথিবীর অন্যান্য প্রতিবেশী রাষ্ট্রগুলি সঙ্গে সুসম্পর্ক বজায় রেখে আন্তর্জাতিক শান্তি প্রতিষ্ঠা করেই এগোতে চায় ইমরান খানের সরকার! সম্প্রতি ভারতীয় প্রধানমন্ত্রীকে এমনই বন্ধুত্বপূর্ণ এক বার্তা দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। এই লক্ষ্যে পৌঁছানোর জন্য জম্বু-কাশ্মীর প্রসঙ্গের সমাধান হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেন তিনি।

সম্প্রতি পাকিস্তান দিবস উপলক্ষে পাক প্রধানমন্ত্রীকে শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছিলেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী। একইসঙ্গে উভয় প্রতিবেশী রাষ্ট্রের মধ্যে সন্ত্রাস এবং বিরোধিতা মুক্ত পরিবেশ গড়ে তোলার বার্তা দিয়েছেন তিনি। তার জবাব দিতে গিয়ে সম্প্রতি পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান জানালেন, ভারতের সঙ্গে পাকিস্তানও বন্ধুত্বপূর্ণ সহাবস্থান বজায় রাখতে চায়।

তবে একই সঙ্গে তার এই বার্তায় উঠেছে জম্বু কাশ্মীর প্রসঙ্গ। প্রসঙ্গত, জম্মু-কাশ্মীরের উপর থেকে ৩৭০ ধারা বাতিল প্রসঙ্গে পাকিস্তান ভারতের বিরুদ্ধে সরব হয়েছিল। পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান আন্তর্জাতিক মহলের দ্বারস্থ হয়েছিলেন। তবে তাতে বিশেষ লাভ কিছুই হয়নি। আবার পাকিস্তানের মদতদাতা চিনও এই বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আন্তর্জাতিক মহলে চাপে রয়েছে।

সবদিক বিবেচনা করে তাই ভারতের কাছে সুর নরম করতে বাধ্য হয়েছে ইমরান খানের প্রশাসন। কূটনীতিবিদরা অন্তত তেমনটাই মনে করছেন। ইমরান খানের বক্তব্য, দক্ষিণ এশিয়ায় স্থায়ী শান্তি প্রতিষ্ঠার জন্য ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে শান্তিপূর্ণ সহাবস্থান জরুরী। আলোচনার জন্য উপযুক্ত পরিবেশ তৈরি হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করেছেন ইমরান খান। পাশাপাশি ভারতকে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য শুভেচ্ছা বার্তাও পাঠিয়েছেন ইমরান।