জীবাণু আটকাতে সক্ষম IIT-এর মাস্ক, ধুতে পারবেন 50 বার, খরচ নামমাত্র

করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রেহাই পেতে হাত ধুতে হবে বারাবর, ঢাকতে হবে মুখ। মুখে মাস্ক পড়ে হাত স্যানিটাইজার দিয়ে ধুয়ে নিতে হবে। বাইরে বেরলেই বাড়ি ফিরে জামাকাপড়ও স্যানিজাইজ করা মাস্ট। তাই তো বর্তমানে বাজারে বেড়েছে মাস্কের চাহিদা। তবে সব মাস্ক কিন্তু জীবানু নাশ সঠিক ভাবে করে না। অর্থ্ সমস্ত ধরনের মাস্ক পড়লে কিন্তু নিরাপত্তা বজায় থাকে না। যদিও এখন বাজারে প্রচুর মাস্কের ধরন এসেছে। কিন্তু সব মাস্ক পড়লেই যে নিরাপদ তাও নয়।

তাই তো করোনার মারণ ভাইরাসের থাবা থেকে সকলকে রক্ষা করতে দিল্লীর আইআইটি স্টার্টআপ ‘NSafe সলিউশনস’ নামের একটি মাস্ক তৈরি করে ফেলেছে। যেটি অত্যন্ত কম দামের ও জীবানু নাশের বিশেষ ভাবে সাহায়্য করবে।এমনিতেই বাজারে অনেক নামি দামি মাস্ক রয়েছে। দামি মানেই যে তা সহজে জীবানু প্রেবেশে বাধা দেবে এমনটা নয়। তাই এই পরিস্থিতিতে সহজলভ্য একটি মাস্ক এনেছে দিল্লি আইআইটি। যা পঞ্চাশ বার ধোওয়ার পরেও ৯৯ শতাংশ জীবানু সহজে ধ্বংস করতে পারবে।

এপ্রসঙ্গে বলতে গিয়ে এই মাস্কের প্রতিষ্ঠাতা অনুসুয়া রায় এই বিষয়ে জানিয়েছেন, “এই মাস্কটি যতটা মজবুত ঠিক ততটাই টেকসই। এই দুটি বৈশিষ্ট্যের কতা মাথায় রেখেই তৈরি করা হয়েছে। যাতে মাস্কটি ৫০ বার পর্যন্ত ধুয়ে ব্যবহার করা যায়। বার বার যাতে নতুন মাস্ক কিনতে না হয় সে কথা মাথায় রেখেই তৈরি করা হয়েছে এই মাস্ক।”

উচ্চ ব্যাকটেরিয়াল ফিল্টারেশন দক্ষতা সম্পন্ন এই মাস্কটি সহজেই ধোওয়া যায়। এখানে যে তিনটি স্তর রয়েছে সেগুলি হল হাইড্রোফিলিক স্তর, মাঝের স্তরে রয়েছে অ্যান্টিমাইক্রোবায়াল স্তর এবং শেষ স্তরে রয়েছে জল এবং তেল প্রতিরোধক স্তর যা সহজেই জীবানু আটকাতে সক্ষম।আর এত সুবিধা থাকতেও মাস্কের দাম অত্যন্ত কম। দুটির দাম মাত্র ২৯৯ টাকা।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন