এই পাঁচ লক্ষণ দেখলেই বুঝবেন আপনার হাতে টাকা আসছে!

গতানুগতিক জীবনে হঠাৎ করেই যদি হাতে বেশ কিছু টাকা এসে যায়, তাহলে মন্দ হয় না। বিশেষ করে, প্রয়োজনের সময়ে। তবে, বেশ কিছু ক্ষেত্রে আচমকাই, কোনো এক অপ্রত্যাশিত উৎস থেকে টাকা আসতে শুরু করে। অনেকেই, একে সৌভাগ্যের নিদর্শন বলে মনে করেন। তবে, হাতে অপ্রত্যাশিতভাবে টাকা আসার আগে কিন্তু বেশ কয়েকটি লক্ষণ আপনাকে আগে থেকেই জানিয়ে দেবে, আসন্ন ভবিষ্যতে বেশ কিছু টাকার মালিক হতে চলেছেন আপনি।

জ্যোতিষ শাস্ত্র অনুযায়ী, এই দুনিয়ায় কোন কিছুই আচমকা হয়না। সবকিছুই পূর্বপরিকল্পিত। পাশাপাশি, বর্তমান হলো ভবিষ্যতের আয়না। বর্তমানের বেশকিছু ঘটনা কিন্তু আসন্ন ভবিষ্যৎ সম্পর্কে জানান দেয়। যেমন ধরুন, আপনার শরীরের কোনো অংশ হঠাৎ করেই কোনো কারণ ছাড়া কাঁপতে আরম্ভ করলো। বিশেষ করে, ভ্রু বা হাতের তালু। তাহলে বুঝে নিতে হবে অদূর ভবিষ্যতে বেশ কিছু টাকা আছে চলছে হাতে।

টিয়া পাখি আবার সৌভাগ্যের প্রতীক।তাই বাড়িতে আচমকাই যদি টিয়া পাখি উড়ে এসে বসে, তাহলে তা কিন্তু অর্থের আগমনকে ইঙ্গিত করে। টিয়া পাখি ছাড়াও, আরো একটি প্রাণী আপনার সৌভাগ্য বহন করবে। তা হলো কালো পিঁপড়ে। কালো পিঁপড়ে যদি মুখে চাল নিয়ে বাড়ির এদিক-ওদিক ছোটাছুটি করে, তাহলে তাকে বাধা দেবেন না। এই পিঁপড়ে কিন্তু অদূর ভবিষ্যতে অর্থের আগমন সম্পর্কে আপনাকে আগাম আভাস দিয়ে রাখছে।

টিয়া, পিপড়ে ছাড়াও টিকটিকিকে সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে মানেন অনেকে। এবং এটা প্রমাণিত, যাদের ব্রহ্মতালুতে টিকটিকি আছড়ে পড়ে, তারা বিরাট সম্পত্তির মালিক হন। তবে এই ঘটনা কিন্তু অত্যন্ত বিরল। আবার শাস্ত্র মতে বলে, বাড়ির দরজায় যদি গরু এসে দাঁড়িয়ে ডাক দেয়, তাহলে তাকে খালি মুখে ফেরাতে নেই। তাকে অবশ্যই কিছু খাবার দিতে হয়। কারণ পথচলতি গরু দরজায় এসে দাঁড়ানো কিন্তু গৃহস্থের সৌভাগ্যের প্রতীক হিসেবে মানা হয়।