‘মেরে ফেললে অন্তত দেহটা দাও’, জঙ্গিদের কাছে আর্জি ৩৮ দিন ধরে নিখোঁজ জওয়ানের পরিবারের

ভারতীয় জওয়ান শাকির মনজুর, যার গত ৩৮ দিন থেকে কোনও ধরনের খোজ পাওয়া যাচ্ছে না। ভারতীয় সেনা ও পুলিশ তন্ন তন্ন করে খোঁজা খুজি শুরু করেছে, কিন্তু তাও মেলে নি তার কোনো ধরনের খোজ। আসলে গত ৩৮ দিন আগেই একটি ঘটনা ঘটেছিলো তার পর থেকেই তার পরিবার ও পুলিশ ও জওয়ানেরা আন্দাজ করছে হয়ত সে আর জীবিত অবস্থায় নেই। রিঝিপোরাতে তার গাড়ি জ্বলন্ত অবস্থায় পাওয়া গিয়েছিল, আর সেখানে পাওয়া যায় নি তার দেহ।

এবারস এটা নিয়েই উঠেছে সন্দেহ। তাহলে কোথায় গেলো তার দেহ। সেনা ও পরিবারেরা মনে করছে তাহলে কি জঙ্গীরা নিয়ে গেছে অপহরণ করে। এখন জঙ্গীদের পাল্লায় পরে সে কি বেছে আছে? এটা নিয়েই উঠছে প্রশ্ন। ঘটনাটি ঘটেছিল গত ২ আগস্ট, কারণ সেই জওয়ানের গাড়ি পাওয়া গিয়েছিল জ্বলন্ত অবস্থায়। আর তার পরেই ৫ আগস্ট তার জামাকাপড়ের টুকরো পাওয়া গিয়েছিল শোপিয়ার লনধরায়। এরপরেই শুরু হয়ে যায় চিরুনী তল্লাশী। আশেপাশের ৬০ কিমি জুড়ে এই তল্লাশি চলে।

কিন্তু কোনোভাবেই পাওয়া যায় না তার খোজ। তবে স্যোশাল মিডিয়ায় একটি অডিও ক্লিপ ভাইরাল হয়ে যায়, সেখানে একজন নিজেকে জঙ্গী দলের সদস্য বলে দাবি করে বসে। আর তার পর থেকেই সন্দেহ আরও ঘন হয়। তাহলে কি শাকির জঙ্গীদের কাছে বন্দি। কিন্তু সেই ভিডিও ক্লিপে জানা যায়, তারা নাকি শাকিরকে খুন করেছে ও একটা অজ্ঞাত স্থানে পুতে ফেলেছে। কিন্তু তার পরেও শাকিরের পরিবারের তরফ থেকে জঙ্গীদের উদ্দেশ্যে বলাহয়েছে, যেনো তাও তাদের ছেলের দেহ তাদের হাতে তুলে দেওয়া হয়। কারণ তারা যেনো শেষ বিদায় জানাতে পারে।