২ সন্তান নীতি মানলেই মিলবে সরকারি সু’বি’ধা, নিয়ম ভা’ঙ’লে’ই হতে হবে ব’ঞ্চি’ত, যোগীরাজ্যে নতুন নি’য়’ম

এবার উত্তর প্রদেশেও অসমের পথে হেঁটেই আসতে চলেছে জননিয়ন্ত্রণ আইন। শুক্রবারই খসড়া বিল প্রকাশ করে উত্তর প্রদেশ রাজ্য আইন কমিশন। খসড়া বিলের লক্ষনীয় অন্যতম দুটি বিষয় হল, যারা দুই সন্তান নীতি অনুসরণ করবেন, তাদের সরকারের তরফে বিশেষ সুযোগ-সুবিধা দেওয়া হবে।

যাদের দুইয়ের অধিক সন্তান হবে, তারা সরকারি সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন।সূত্র অনুযায়ী, রবিবারই কার্যকর করা হবে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণ নীতি, যার মেয়াদ ২০৩০ সাল অবধি। এরই মাঝে আনা হবে জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণের নতুন আইনও।

এই বিষয়ে উত্তর প্রদেশের রাজ্য আইন কমিশনের চেয়ারম্যান বিচারপতি এএন মিত্তল জানান, রাজ্যের জনসংখ্যা নিয়ন্ত্রণে এই নতুন বিলে একাধিক নিয়ম আনা হয়েছে। একদিকে যেমন, দুইয়ের অধিক সন্তান থাকলে স্থানীয় নির্বাচনে লড়ার অধিকার দেওয়া হবে না, তেমনই আবার সরকারি চাকরির জন্যও আবেদন করা যাবে না। নতুন বিলে এক পরিবারে সর্বোচ্চ রেশন কার্ডের সংখ্যাও চারে বেঁধে দেওয়া হয়েছে।

সরকারি চাকুরিরতদের ক্ষেত্রে, যারা দুই সন্তান নীতি অনুসরণ করবে, তাদের চাকরির মেয়াদকালে দুইবার অতিরিক্ত বেতন বৃদ্ধির সুবিধা দেওয়া হবে, জমি বা বাড়ি কেনার ক্ষেত্রে সহায়তা, বিভিন্ন নিত্য প্রয়োজনীয় পরিষেবায় ছাড় ও জাতীয় পেনশন স্কিমের অধীনে ইপিএফে অতিরিক্ত তিন শতাংশ অর্থ মিলবে। যাদের একটি সন্তান রয়েছে, তাদের বিনামূল্যে স্বাস্থ্য পরিষেবা ও সন্তানের ২০ বছর অবধি।