যদি সাধ্য থাকে একজন রোগীকে দত্তক নিন, নয়তো ওষুধ কিনে দিন, আর্জি জানালেন সোনু সুদ

মানুষের মনে জায়গা করে নেওয়ার জন্য যে রুপোলি পর্দায় ভালো অভিনয় করতেই হবে এর কোন মানে নেই, তা আবারো প্রমাণ হয়ে গেল। মানুষ মনোরঞ্জন করার জন্য রুপোলি পর্দায় সিনেমার এর অভিনয় দেখতে ভালোবাসেন, কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি কঠিন হলে মানুষ সিনেমা জগৎ থেকে অনেক বেশি পছন্দ করে বাস্তব জগতের হিরোদের। তাই একইসঙ্গে যখন বাস্তব জীবনে প্রত্যেকের ঘৃণার সম্মুখীন হতে হচ্ছে অভিনেতা সালমান খানকে,সেখানেই সকলের মনে জায়গা করে নিলেন অভিনেতা সনু সুদ।দেশের কঠিন পরিস্থিতিতে শরীরে পরিযায়ী শ্রমিকদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন সনু সুদ। তিনি ছাড়া আর কোন বলিউডের অভিনেতাদের এইভাবে অসহায়দের পাশে দাঁড়াতে দেখতে পাওয়া যায়নি।একের পর এক মানুষের কাছে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়ে তাদের নিরাপদে বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করেছিলেন অভিনেতা।

পরিচয় শ্রমিকদের বাড়ানোর পাশাপাশি তাদের মুখে অন্ন তুলে দেবার ব্যবস্থা করেছিলেন এই অভিনেতা। এবার যে সমস্ত রোগী বিনা চিকিৎসায় মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ছেন, তাদের পাশে দাঁড়ানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছেন এই গরিবের ভগবান।বর্তমান পরিস্থিতি আমাদের সামনে উঠে আসছে কোন না কোন স্থানে বিনা চিকিৎসায় রোগীর মৃত্যুর খবর।সরকারি হাসপাতালে যেখানে বেড পাওয়া যাচ্ছে না, সেখানেই বেসরকারি হাসপাতালে টাকার অংক এতটাই আকাশছোঁয়া যে, বেড ফাঁকা থাকলেও বেসরকারি হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য যেতে পারছে না রোগী। তাই বিনা চিকিৎসাকে এভাবে যাতে আর কোন মানুষকে মৃত্যুবরণ না করতে হয় তার জন্যই জনসাধারণের কাছে আর্জি জানালেন অভিনেতা সনু সুদ।

সম্প্রতি অভিনেতা জানালেন যে,”আমরা অনেক সময় কোনো শিশুকে দত্তক নিয়ে তাকে নতুন জীবন দান করি। আজ সময় এসেছে কোন কারণে আক্রান্ত রোগীকে দত্তক নেওয়ার। যদি ক্ষমতা থাকে কোন হাসপাতালে রোগীর চিকিৎসা ভার গ্রহণ করুন, যদি সেটাও সম্ভব না হয়ে থাকে অন্ততপক্ষে তাকে কিছু ওষুধ কিনে দেবার ব্যবস্থা করুন”। জনসাধারণের কাছে আর্জি জানিয়ে থেমে থাকেনি সনু সুদ।নিজেও তিনি তার দেখানো পথেই হাঁটতে শুরু করেছেন। জনসাধারণের কাছে এই আরজি জানানোর পরে তিনি সোশ্যাল মিডিয়ায় পেয়েছিলেন একটি প্রেসক্রিপশন, যা চোখে পড়া মাত্রই তিনি উত্তর দিয়েছিলেন। প্রেসক্রিপশন টি পড়ে বুঝতে না পারায় রোগীর থেকে জানতে চেয়েছেন কোন ওষুধ তার প্রয়োজন।

প্রয়োজন মতো তাকে সেই ওষুধ কিনে পাঠিয়ে ছিলেন অভিনেতা।অভিনেতা সদস্যদের এই নতুন উদ্যোগে আরো একবার সাধারণের মানুষ কিছুটা হলেও স্বস্তি পায়। তবে শুধু একজন কেন, এই সময়ে বলিউডের অভিনেতা কে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হত। মহামারীর কবলে পড়ে আরো একবার স্পষ্ট হয়ে গেল যে, বিনোদন শুধু উপভোগ করার জন্য সীমিত থাকে, সত্যি তার সঙ্গে বাস্তবের কোন মিল নেই।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন