কোনো কারণে দুধ নষ্ট হয়ে গেলে এইসব কাজে লাগাতে পারেন, জেনে নিন

দুধের উপকারিতা সম্পর্কে আমরা সকলেই অবগত। প্রত্যেকদিন দুধ খেলে আমাদের শরীরে ক্যালসিয়ামের ঘাটতি দূর হয়ে যায়। দুধের মধ্যে থাকে প্রোটিন ক্যালসিয়াম পটাশিয়াম, যা আমাদের পেশীকে শক্ত ও মজবুত রাখে। তবে অনেক সময় আমাদের সামান্য ভুলের জন্য অনেকটা দুধ নষ্ট হয়ে যেতে পারে।

অনেক সময় দেখতে পাই যে দুধ হয়তো কেটে গেছে, বা নষ্ট হয়ে গেছে। কিন্তু আমরা অনেকেই জানি না যে, কেটে যাওয়া দুধ ফেলে না দিয়ে কাজে লাগানো যায়। কেটে যাওয়া দুধের ও নানা রকম ব্যবহার আছে, যেগুলি আজকের প্রতিবেদন এর সাহায্যে জেনে যাব আমরা।

চিজ: অনেকেই হয়তো আমরা জানি না যে নষ্ট হয়ে যাওয়া দুধ থেকে তৈরি হয় চিজ। ঘরে কেটে যাওয়া দুধ ফেলে না দিয়ে সেটি দিয়ে ছানার বল বানিয়ে তরকারিও করে দিতে পারবেন আপনি। এছাড়াও চিজ তৈরি করার রেসিপি পেয়ে যাবেন ইন্টারনেটে।

ফেস মাক্স: রূপচর্চায় দুধ যে কতখানি উপকারিতা আমরা সকলেই জানি। তবে নষ্ট হয়ে যাওয়া দুধ ও কিন্তু ত্বকের জন্য ভীষণ উপকারী। নষ্ট হয়ে যাওয়া দুধ ফেস মাস্ক এর মতো লাগিয়ে শুয়ে পড়ুন। শুকিয়ে গেলে সে দিকে দেখবেন ত্বক উজ্জ্বল হয়ে গেছে।

স্যালাড ড্রেসিং: দুধ নষ্ট হয়ে গেলে সেটাকে ফেলে না দিয়ে অনায়াসে স্যালাড ড্রেসিংয়ের কাজে ব্যবহার করতে পারবেন। ক্রিম এর পরিবর্তে কেটে যাওয়া দুধ দিলেও কিন্তু স্যালাড সাজিয়ে নেওয়া যায়।

বেকিং: প্যানকেক, কেক অথবা অন্য রকম ডিজার্ট বানানোর জন্য কেটে যাওয়া দুধ ব্যবহার করা যায় তাই দুধ কেটে গেলে সহজেই বানাতে পারবেন এই ধরনের খাবার।

গার্ডেনিং: আমরা অনেকেই জানিনা গাছের পরিচর্যা করতে ব্যবহার করা যায় নষ্ট হয়ে যাওয়া দুধ।দুধে অতিরিক্ত ক্যালসিয়াম গাছে ক্যালসিয়াম সরবরাহ করতে কাজে লাগে। দুধ দিলে দেখবেন চারা গাছ গুলো খুব তাড়াতাড়ি বেড়ে যায়।

পশু: বাড়িতে বিড়াল থাকলে কেটে যাওয়া দুধ ফেলে না দিয়ে তাদের খেতে দিন। দেখবেন কত খানি তৃপ্তি করে তারা খাচ্ছে।