কেন্দ্রে ক্ষমতা হাতে পেলেই কৃষি আইন তুলে দেবো, ঘোষণা রাহুল গান্ধীর

“কংগ্রেস ক্ষমতায় এলে মোদি সরকার প্রণীত নতুন কৃষি আইন বাতিল করা হবে”, কংগ্রেস দল নেতা তথা সাংসদ রাহুল গান্ধি রবিবার পাঞ্জাবে কৃষদের খেতি বাঁচাও র‌্যালিতে অংশগ্রহণ করে বক্তব্য রাখতে গিয়ে কৃষকদের উদ্দেশ্যে এমনই আশ্বাস দিলেন। নতুন কৃষি আইন ২০২০ এর বিরুদ্ধে প্রচার চালাতে গিয়ে রাহুল গান্ধী বলেন, করোনা মহামারীর মধ্যেও জোর করে সংসদে কৃষি বিল পাশ করিয়েছে কেন্দ্র। কংগ্রেস ক্ষমতায় এলে এই তিনটি “কালা কানুন” আস্তাকুড়েতে ছুঁড়ে ফেলা হবে।

উল্লেখ্য, নতুন কৃষি আইন নিয়ে বেশ আশাবাদী মোদি সরকার। কেন্দ্রের দাবি, নতুন আইন নিয়ে খুশি কৃষকেরা। তবে বিরোধীরা শুধু নিজেদের স্বার্থ রক্ষা করতে নতুন আনের বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালাচ্ছে। মোদি সরকারের এই বক্তব্যের পরিপ্রেক্ষিতে রাহুল গান্ধীর কটাক্ষ, কৃষকেরা যদি এই আইন নিয়ে খুশিই হবেন, তাহলে দেশজুড়ে এত প্রতিবাদ হচ্ছে কেন? তিনি প্রশ্ন তুলেছেন, কৃষকদের স্বার্থ রক্ষার উদ্দেশ্যে যদি নতুন আইন আনা হয়, তাহলে তার আগে সংসদে বিস্তারিত আলোচনা কেন করা হলো না?

উল্লেখ্য,নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানানোর উদ্দেশ্যে সারা দেশজুড়ে একাধিক পদযাত্রায় অংশ নেওয়ার কথা রাহুল গান্ধীর। কংগ্রেসের তরফ থেকে এই পদযাত্রা নাম দেওয়া হয়েছে “খেতি বাঁচাও যাত্রা”। রাহুল গান্ধীর নেতৃত্বে রবিবার থেকে একটি ট্র‌্যাক্টর র‌্যালির আয়োজন করা হয়। রাহুল গান্ধীর সঙ্গে এর প্রতিবাদ মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন পাঞ্জাবের মুখ্যমন্ত্রী অমরিন্দর সিং। এদিনের প্রতিবাদ মঞ্চে উপস্থিত হয়ে অমরিন্দর সিং বলেন, নতুন কৃষি আইন পাসের পরেও ন্যূনতম সহায়ক মূল্য সংক্রান্ত কোনো আইন পাস করেনি কেন্দ্রীয় সরকার।

অতএব, কৃষকদের জন্য উৎপাদিত পণ্যের উপর ন্যূনতম সহায়ক মূল্য কিন্তু এখনও নিশ্চিত নয়। প্রসঙ্গত, নতুন কৃষি আইনের বিরুদ্ধে পাঞ্জাবে দফায় দফায় প্রতিবাদ জানিয়েছেন কৃষকেরা। পাঞ্জাব কংগ্রেসের তরফ থেকে জানানো হয়েছে,তারা সুপ্রিম কোর্টের কাছে এই আইন বাতিলের আবেদন জানাবেন।