বাংলার বুকে বিজেপির জিনা হারাম করে দেবো: মদন মিত্র

গতকাল হুগলির সাহাগঞ্জ এর মাঠের একটি সভায় দাঁড়িয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি রাজ্য সরকারের উপরে তোপ দেগেছেন। আর সেই কথার পরিপ্রেক্ষিতেই জবাব দিয়েছে মদন মিত্র। তিনিও তৃণমূলের একটি সভায় দাঁড়িয়ে গতকাল সোমবার পাল্টা জবাব দেয় প্রধানমন্ত্রীকে। তিনি বলেন বিজেপির একটা সময় এমন অবস্থা হবে, তারা বাংলায় ঢুকতে পারবে না তাদের জন্য বাংলায় ঢোকার রাস্তা বন্ধ হয়ে যাবে। আর যারা বাংলায় ঢুকবে, তারা বেরোনোর রাস্তা খুঁজে পাবে না।

প্রধানমন্ত্রী কে তিনি পাগল বলেও কটাক্ষ করেন।তিনি বলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দূর্গা পূজার বিসর্জন বন্ধ করেনি বরং বিভিন্ন ক্লাবগুলোকে ৫০ থেকে ১ লক্ষ টাকা সাহায্য করেছে। এর পরেই তিনি শেষে বলেন বাংলায় বিজেপির জিনা হারাম করে ছাড়বো। প্রধানমন্ত্রী হুগলির ডানলপের সভা মঞ্চ থেকে দাঁড়িয়ে তৃণমূলকে কটাক্ষ করে বলেন, হুগলির বন্দেমাতরম ভবন কেন বেহাল দশায় পড়ে আছে? কারণ এর পিছনে রয়েছে বিশাল বড় রাজনীতি। এই সমস্ত নোংরা রাজনীতির কারণেই বাংলার মানুষের আবেগকে আঘাত করা হচ্ছে, এমনকি দুর্গাপূজার থেকে শুরু করে বিসর্জন পর্যন্ত বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।

কিন্তু বিজেপি বাংলায় আসলে এই ধরনের বাঙালি সংস্কৃতির ওপরে কোনভাবেই আচর কাটবেনা। বরং বাঙালিরা নিজেদের সংস্কৃতির গুনোগান করতে পারবে। প্রধানমন্ত্রী মুখে বাংলার রাজনীতির বিভিন্ন কটাক্ষ শোনা যায় এমনকি তোলাবাজির অভিযোগ করেন তিনি। তাই বাংলায় ফোটাতে হবে পদ্ম। তিনি আরো বলেন বাংলায় সাধারণ মানুষকে কাটমানি সিন্ডিকেট প্রথম থেকে আক্রমণ করে চলেছে।সামান্য বাড়ি ভাড়া নিতে হলেও এই সমস্ত দিতে হচ্ছে তাদের। তাই বাংলায় বিজেপি না আসা পর্যন্ত এই ধরনের সমস্যা কখনোই দূর হবে না।