হাত বুলিয়ে দিচ্ছিলো মাথায়, তখনও জানতাম না এটাই শেষ মাকে কাছে পাওয়া: জাহ্নবী কাপুর

২৪ ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ তে মারা যান শ্রীদেবী। এক আত্মীয়ের বিয়ের অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করতে দুবাই -এ গিয়েছিলেন তিনি। মেয়ে জাহ্নবী তখন ধড়ক ছবির শুটিং নিয়ে ব্যস্ত। ২৩ ফেব্রুয়ারি রাতে কিছুতেই ঘুম আসতে চায় না তাঁর। মা’র কাছে আবদার করেন ‘ঘুম পাড়িয়ে দাও’। শ্রীদেবীর হাতে তখন একগাদা কাজ। প্যাকিং বাকি, বাড়ির কাজ। কিন্তু মেয়ের আবদার কি ফেলা যায়?

জাহ্নবী শুয়ে পড়লে আসতে আসতে মেয়ের মাথার কাছে বসে হাত বোলাতে থাকেন শ্রীদেবী। মেয়ে তখন আধোঘুমে আচ্ছন্ন। মায়ের হাতের ছোঁয়ায় ক্রমশ চোখের পাতা ভারি হতে থাকে তাঁর। জাহ্নবী বলেছেন “ঘুম লাগা চোখেই বেশ বুঝতে পারছিলাম মা মাথায় হাত বুলিয়ে দিচ্ছে”। পরের দিন ভোর বেলা শুটিং এর ব্যস্ততার জন্য ‘মা আসছি’ আর বলা হয়ে ওঠেনি তাঁর। মা-ও উড়ে গিয়েছিলেন বাণিজ্যনগরীতে।

 

View this post on Instagram

 

Miss you everyday

A post shared by Janhvi Kapoor (@janhvikapoor) on

এর পরেই এক খবর আসে মর্মান্তিক ঘটনার। জানা যায় শ্রীদেবী আর নেই। গোটা বিশ্বের সময় হঠাৎই থমকে গিয়েছিল। কী করে সম্ভব? কেঁদে উঠেছিল বলিউড। মা’কে আজও মিস করেন জাহ্নবী। মিস করেন তাঁর গায়ের গন্ধ। অপেক্ষা করেন, কবে মা আসবে? মায়ের আদর খেতে খেতে তিনি ঘুমিয়ে পড়বেন নিশ্চিন্তে।

দু’বছর হয়ে গিয়েছে শ্রীদেবী এই পৃথিবীতে নেই। দুবাইয়ের এক সাতমহলা হোটেলের বাথটবের জলে ভেসে উঠেছিল তাঁর নিথর দেহ। মৃত্যু, স্বেচ্ছামৃত্যু, নাকি খুন? বিতর্ক আজও রয়েছে। আরব সাগরের বুকে এখনও ভেসে বেড়ায় তাঁর নীরব কলোরব। মা নেই, আজও বিশ্বাস হয় না জাহ্নবীর। কত কিছু বলার ছিল মাকে। কত আবদার-আদর বাকি ছিল তাঁর। শেষ বার কী কথা হয়েছিল মা-মেয়ের? করণ জোহরের শোয়ের সেই স্মৃতিচারণ করতে গিয়ে চোখ ভিজে এল জাহ্নবীর।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন

/p>