আমি নিয়েছি, আমার মা নিয়েছে, আপনারাও নিন, টি’কা নিয়ে ভ’য় দূ’র করতে বা’র্তা প্রধানমন্ত্রীর

এখন করোনা ভ্যাকসিনের টিকা অনেকেই নিতে চায় না। টিকা নিলে জ্বর অথবা মাথা যন্ত্রণার মত কষ্ট হয় বলে অনেকেই ভয়ে টিকা নিতে চান না। তারমধ্যে রাজ্যজুড়ে জাল টিকার খবর যে ভাবে ছড়িয়ে পড়েছে, তাতে করে অনেকেই টিকা গ্রহণ করতে নারাজ। মানুষের মন থেকে এই ভয় দূর করার জন্য আরো একবার মানকি বাত অনুষ্ঠানে সকলের উদ্দেশ্যে কিছু কথা বললেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।নিজের মায়ের উদাহরণ তুলে এনে তিনি বললেন, “আমার মাও কিন্তু বিজ্ঞানের উপর ভরসা করেছেন”।

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেন,”একুশে জুন দেশে ৮৬ লক্ষের বেশি মানুষকে বিনা মূল্যে টিকা দেওয়ার রেকর্ড গড়েছিল কেন্দ্র। এক বছর আগে প্রশ্ন ছিল যে টিকা আদৌ পাবে কিনা মানুষ। আজ আমরা বিনামূল্যে দেশকে ভারতের তৈরি ভ্যাকসিন দিতে পারছি”। এর পরেই মধ্যপ্রদেশের এক গ্রামবাসীর সঙ্গে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। প্রধানমন্ত্রীকে ওই ব্যক্তি জানান, অনেকেই রয়েছেন যারা দাবি করেন যে করোনা টিকা নেওয়ার ফলে মৃত্যু হচ্ছে তাদের। সঙ্গে সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর তাকে জিজ্ঞাসা করেন, “আপনি কি টিকা গ্রহণ করেছেন”? তখন সেই ব্যক্তি জানান, তিনি টিকা গ্রহণ করেননি। টিকা গ্রহণ করার বিষয়ে তার মনে যথেষ্ট সংশয় রয়েছে। তখনই ওই ব্যক্তিকে টিকা নিতে বিভ্রান্ত হতে বারণ করছেন প্রধানমন্ত্রী।

টিকা নিতে আশ্বস্ত করতে গিয়ে নিজের মায়ের কথা উল্লেখ করেন প্রধানমন্ত্রী। তিনি দাবি করে বলেন, “মহামারীকে আটকাতে টিকার কোন বিকল্প নেই’। আমার মা দুটি ডোজ নিয়েছেন। আমিও নিয়েছি। যারা বিভ্রান্তি ছড়াচ্ছে তাদের ছড়াতে দিন। আমরা সবাই মিলে সমস্ত নিয়ম মেনে চললে এবং টিকা গ্রহণ করলে এই মহামারীকে হারিয়ে দেওয়া সম্ভব”।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন,” অনুগ্রহ করে ভয় পাবেন না। অনেকেরই জ্বর আসতে পারে কিন্তু সেটা মাত্র কয়েক ঘণ্টার জন্য। টিকা যদি গ্রহণ না করেন তাহলে পরবর্তী সময়ে আপনি আরো বেশি অসুস্থ হতে পারেন মহামারী হলে। আপনি শুধুমাত্র নিজের ক্ষতি করছেন তা নয় আপনি নিজের পরিবারকে ঝুঁকির মুখে ফেলে দিচ্ছেন টিকা গ্রহণ না করে। এই লড়াই চলাকালীন আমরা অনেক মাইলফলক ছুঁয়ে ফেলেছি। বিজ্ঞানীদের উপর দয়া করে ভরসা রাখুন। কোন নেতিবাচক কথায় কান দেবেন না”।