বিয়ের শখ জমেছে মনে, বাবাকে রোগী সাজিয়ে অ্যাম্বুলেন্সে বিয়ে করতে গেলো ছেলে

গোটা দেশ জুড়ে করোনা আতঙ্ক। ভারতে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ক্রমশ বেড়েই চলছে, বাড়ছে মৃত্যু। করোনা মোকাবিলার জন্য গোটা দেশ জুড়ে ১৭ মে পর্যন্ত লকডাউন বাড়িয়ে দিয়েছে কেন্দ্র সরকার। লকডাউনের জেরে বন্ধ হয়ে গিয়েছে বিয়ের অনুষ্ঠান। অনেকেই বিয়ে পিছিয়ে দিচ্ছেন, অনেকেই আবার মন্দিরে গিয়ে সামাজিক দূরত্ব মেনেই বিয়ে করছেন। কিন্তু বিয়ে করার লক্ষে এক অদ্ভুত কান্ড ঘটালেন মুজফ্ফরনগরের খাটৌলি এলাকার আহমেদ নামে এক ২৬ বছরের যুবক।

এই এলাকাকে ইতিমধ্যেই হটস্পট হিসাবে চিহ্নিত করেছে প্রশাসন এবং সেই এলাকা থেকেই অ্যাম্বুল্যান্সে করে বিয়ে করতে দিল্লি গিয়েছিলেন আহমেদ। পথে যদি পুলিশের বাধা পরে, তা এড়াতে বাবাকে অসুস্থ সাজিয়েছিলেন।তবে বিয়ে করে বউ ও বাবাকেও বাড়িতে নিয়ে আসলেও শেষরক্ষা হয়নি। পড়শিরা পুলিশকে জানিয়ে দেওয়ায় গোটা পরিবারকে নিভৃতবাসে যেতে হয়েছে গোটা পরিবারকে। এই কথা মঙ্গলবার উত্তরপ্রদেশ পুলিশ জানিয়েছেন।

পুলিশ তদন্তের সময় জানতে পেরেছে, এই ঘটনার কয়েকদিন আগে ওই যুবক আপার গঙ্গা ক্যানাল রোড দিয়ে দিল্লি যাওয়ার চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু পুলিশ আটকে তাঁকে বাড়ি পাঠিয়ে দেয়। এরপর আহমেদ অ্যাম্বুল্যান্স ভাড়া করে বিয়ে করার পরিকল্পনা করেন। ওই পরিবারকে নিভৃতবাসে পাঠানোর পাশাপাশি অ্যাম্বুল্যান্স চালককে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন খাটৌলির থানার অফিসার সন্তোষ ত্যাগী।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন

/p>