আমি নিজেই একজন কৃষক, কৃষিবিল নিয়ে ব্যাখ্যা দিলেন রাজনাথ সিং

সম্প্রতি, কেন্দ্রের প্রস্তাবিত নতুন কৃষি বিল সম্পর্কে তুমুল হাঙ্গামা চলে রাজ্যসভায়। রাজ্যসভার চেয়ারম্যান এম ভেঙ্কাইয়া নাইডু ইতিমধ্যেই এই বিলের বিরুদ্ধ মতপোষণকারী আট জন সাংসদকে সংসদের অবমাননার দায়ে এক সপ্তাহের জন্য রাজ্যসভা থেকে বহিষ্কার করে দিয়েছেন। এই নিয়ে রাজনৈতিক মহলে বিতর্ক তুঙ্গে। রাজ্যসভার চেয়ারম্যানের পদক্ষেপকে সমর্থন জানিয়ে সম্প্রতি কেন্দ্রীয় কৃষি বিলের পক্ষেই সওয়াল করলেন কেন্দ্রীয় প্রতিমন্ত্রী রাজনাথ সিং।

রবিবার সন্ধ্যায় একটি সাংবাদিক সম্মেলনের আয়োজন করে কেন্দ্রীয় কৃষি বিল সম্পর্কে সঠিক বার্তা দেশবাসীর উদ্দেশ্যে পৌঁছানোর উদ্যোগ গ্রহণ করলেন রাজনাথ সিং। এদিনের সাংবাদিক বৈঠকে তিনি জানিয়েছেন, প্রস্তাবিত নতুন কৃষি বিল কোনোভাবেই কৃষকদের স্বার্থে আঘাত করবে না। কেন্দ্র কখনোই দেশের কৃষকদের অসুবিধার মুখে ফেলবে না। তিনি নিজেকে কৃষক বলে দাবি করে জানান, MSP তথা মিনিমাম সাপোর্ট প্রাইস এবং APMC তথা অ্যাগ্রিকালচারাল প্রোডিউস মার্কেট কমিটির সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত হবেন না কৃষক।

নতুন কৃষি বিল সম্পর্কে বিরোধীদের আচরণের কড়া সমালোচনা করে তিনি আরো বলেন, রবিবার রাজ্যসভায় দুটি বিল নিয়ে আলোচনা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল। তবে বিরোধীদের আচরণে তা সম্ভব হলো না। রবিবারের ঘটনাকে অত্যন্ত দুঃখজনক এবং লজ্জাকর ঘটনা বলে চিহ্নিত করে প্রতিরক্ষা মন্ত্রীর বক্তব্য, সংসদের অধিবেশন মসৃণভাবে চালানোর দায়িত্ব কেন্দ্রের পাশাপাশি বিরোধী দলগুলিরও রয়েছে। রবিবার সংসদে গণতন্ত্রবিরোধী কাজ হয়েছে।

পাশাপাশি রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যানের অবমাননা সম্পর্কে বলতে গিয়ে তিনি বলেছেন, সংসদে কিভাবে চেয়ারম্যানকে অবমাননা করা হয়েছে, তা সারা রাষ্ট্র দেখেছে। লোকসভা রাজ্যসভা এই ধরনের ঘটনা নজিরবিহীন বলে দাবি করেছেন কেন্দ্রীয় প্রতিরক্ষামন্ত্রী। উল্লেখ্য, বিরোধীদের প্রবল বিরোধিতা সত্ত্বেও সংসদে নতুন কৃষি বিলটি ধ্বনি ভোটে পাশ হয়ে যায়। বিল পাসের পর প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী টুইট বার্তায় দেশের কৃষকদের অভিনন্দন জানিয়ে বলেন, ভারতীয় কৃষি ক্ষেত্রে এই সময়টি একটি যুগান্তকারী মুহূর্ত! এর ফলে কৃষি ক্ষেত্রে ব্যাপক রূপান্তর ঘটবে।