এইসব সম্পত্তি আছে আমার! হলফনামায় জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়, জেনে নিন

বুধবার নন্দীগ্রামের বিধানসভা কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়নপত্র জমা দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এই মনোনয়নপত্রের সঙ্গেই জমা করেছেন তার স্থাবর-অস্থাবর সম্পত্তির পরিমাণ সংক্রান্ত বিশেষ হলফনামা। মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এই মুহূর্তে কত অর্থ এবং সম্পত্তি রয়েছে তার খতিয়ান তুলে ধরা হয়েছে ওই হলফনামায়। সেখান থেকেই জানা গেল এই মুহূর্তে মুখ্যমন্ত্রীর কাছে এক লক্ষ টাকারও কিছু কম অর্থ রয়েছে।

ওই হলফনামা থেকেই জানা গিয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর নামে এই মুহূর্তে কোনো বাড়ি কিংবা সম্পত্তি নেই। মুখ্যমন্ত্রীর নিজস্ব কোনো গাড়িও নেই। এই খতিয়ানে উল্লেখ করা হয়েছে, ২০১৯-২০ অর্থবছরে মুখ্যমন্ত্রীর বার্ষিক আয় ছিল ১০ লক্ষ ৩৪ হাজার ৩৭০ টাকা। ২০১৮-১৯ অর্থবছরে ছিল ২০ লক্ষ ৭১ হাজার ১০ টাকা, যা গত পাঁচ বছরে মুখ্যমন্ত্রীর আয়ের নিরিখে সর্বোচ্চ।

তবে এই মুহূর্তে মুখ্যমন্ত্রী হাতে রয়েছে ৬৯ হাজার ২৫৫ টাকা নগদ। এছাড়া কয়েকটি ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট এবং ন্যাশনাল সেভিং সার্টিফিকেট অনুসারে তার অস্থাবর সম্পত্তির মোট পরিমাণ ১৬ লক্ষ ৭২ হাজার ৩৫২ টাকা ৭১ পয়সা। যার মধ্যে তার ৯ গ্রাম ৭৫০ মিলিগ্রাম ওজনের অলংকারের হিসেবেও রয়েছে।

হলফনামায় উল্লেখ করা হয়েছে, মুখ্যমন্ত্রীর নামে কোনো চাষযোগ্য জমি অথবা বাণিজ্যিক ভাবে ব্যবহারের কোনো স্থান নেই। ব্যাংকে কোনো ঋণের বোঝাও তার উপর নেই। আবার পৈতৃকসূত্রেও কোনো সম্পত্তির অধিকারীণী তিনি নন। আয়কর, পণ্য পরিষেবা কর (জিএসটি), পুরসভার সম্পত্তি কর বাবদ কোনো বকেয়াও নেই মুখ্যমন্ত্রীর নামে।