বিরাট ধাক্কা চীনকে, পিপিই কিট উৎপাদক দেশ হিসেবে ভারত দখল করলো দ্বিতীয় স্থান

বর্তমানে গোটা দেশে করোনা একপ্রকার ত্রাস হিসেবে ছড়িয়ে পড়েছে।দেশের প্রায় সর্বত্রই এই ভাইরাসের উপস্থিতি লক্ষ্য করা গিয়েছে।এই মারণ ভাইরাসের প্রভাব এতটাই দেশ জুড়ে কার্যকর হয়েছে যাতে গোটা দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় সাড়ে ৫৬ হাজার অতিক্রম করে গিয়েছে।এই পরিস্থিতিতে এখন প্রধান ভরসা চিকিৎসক এবং চিকিৎসাকর্মীদের উপরই রেখেছে দেশের সমস্ত সর্বসাধারণ এবং দেশের চিকিৎসকা ব্যবস্থা এখানে একেবারেই নিরাশ করেনি।

প্রসঙ্গত, বেশ কিছুদিন আগে শোনা গিয়েছিল অন্যান্য মেডিকেল কিট সহ অনেক ধরণের প্রোটেকশনই ভারত নাকি বিদেশ থেকে এদেশে আনিয়ে চিকিৎসা পদ্ধতি চালু রেখেছে।তবে এই কথা যে একেবারেই ভিত্তিহীন তা প্রমাণ করে দিলো ভারতবর্ষ। মাত্র দু’মাস সময়ের মধ্যে অনেকটা বেশি কাজ করে বর্তমানে পিপিই কিট উৎপাদনে ভারত সমগ্র বিশ্ব জুড়ে দ্বিতীয় স্থান অর্জন করেছে।গোটা দেশে স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষা, চিকিৎসক, এবং পিপিই কিটের প্রয়োজন মেটাতেই ভারতের এই প্রচেষ্টাকে দ্বিতীয় স্থানে বসালো তাঁদের।

গোটা বিশ্ব জুড়ে যখন করোনা ভাইরাস তার থাবা বসিয়েছে। তখন ভারতে দেশীয়ভাবে এটি তৈরির কোন রকম ব্যবস্থা ছিল না। কিন্ত এরপর গোটা বিশ্ব জুড়ে পিপিই কিটের সংকটের দিকে তাকিয়ে ভারত নিজেকে একমাত্র দেশ হিসেবে পরিচিতি করায় যেখানে মেডিক্যাল ক্ষেত্রে ব্যবহারের জন্য ৫২ হাজার কিট আমদানি করেছিলো তাঁরা।কিনচ এরপরই টনক নড়ে কেন্দ্রীয় মন্ত্রকের। বিভিন্ন প্রাইভেট সেক্টরের সঙ্গে যৌথ প্রচেষ্টায় এমন ভাবে কাজ শুরু হয় যার ফলে ভারচ এখন বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ যাঁদের পিপিই কিট সর্বোচ্চ।

সব খবর সরাসরি পড়তে আমাদের WhatsApp  Telegram  Facebook Group যুক্ত হতে ক্লিক করুন

/p>