কতখানি হিংসে! শ্রীদেবীর সাথে নিজের সম্পর্কের কথা অবশেষে স্বীকার করলেন জয়াপ্রদা

বলিউড ইন্ডাস্ট্রি হলো গসিপের অন্যতম জায়গা। যেখানে পাতার পর পাতা ছড়িয়ে রয়েছে গসিপ। কান পাতলেই শোনা যায় নানা রকম সম্পর্কের কথা। তেমনই একটি কাহিনী আমরা শুনতে পেয়েছিলাম কাপিল শর্মা শো তে। শ্রীদেবী কে নিয়ে একটি চাঞ্চল্যকর তথ্য তুলে ধরেছিলেন জয়াপ্রদা।

শ্রীদেবী যে উনবিংশ শতকের একজন ডাকসাইটে সুন্দরী ছিলেন তা বলাই বাহুল্য। তার এক ঝলক দেখার জন্য অনায়াসে প্রাণ দিয়ে দিতে পারতেন অনেকেই। তাকে নিজের করে পাওয়ার জন্য বহু চেষ্টা করেছেন পুরুষেরা। তার সমসাময়িক অভিনেত্রীদের হিংসার পাত্র হয়ে দাঁড়িয়েছিলেন শ্রীদেবী।

তেমনই একজন অভিনেত্রী ছিলেন জয়াপ্রদা। তার সৌন্দর্য কোন অংশে কম ছিলনা। পর্দাতে এই দুই অভিনেত্রীকে বহুবার বোনের চরিত্রে অভিনয় করতে দেখা গেছে। তবে বোনের চরিত্রের সিন গুলি করার আগে এবং পরে কি হতো, তা আমাদের শুনিয়েছেন জয়াপ্রদা। শ্রীদেবীর আকস্মিক মৃত্যুর পর অনেকেই চমকে গিয়েছিলেন। কেন হঠাৎ করে তিনি আমাদের ছেড়ে চলে গেলেন তা নিয়ে আজও প্রশ্ন রয়েছে সকলের মনে। কিন্তু সেই প্রশ্নের উত্তর আজো আমাদের কাছে অধরা।

এবার আসি জয়াপ্রদা এবং শ্রীদেবীর কথাতে। সিনেমায় দুজনে বোনের চরিত্রে অভিনয় করছেন।কিন্তু সিন হবার আগে তারা একে অপরের সঙ্গে কথা বলতেন না। একে অপরের থেকে অনেকটা দূরে বসে থাকতেন। যেন কেউ কাউকে চিনতে পারছেন না। তখন সেই সময় হস্তক্ষেপ করতে হতো জিতেন্দ্র কে। একদিন তিনি দুইজনকে একটি ঘরের মধ্যে আটকে দিয়ে বাইরে থেকে দরজা লাগিয়ে দেন।অনেকক্ষণ একসঙ্গে থাকার পর দুই অভিনেত্রী একে অপরের সঙ্গে কথা বলেছিলেন।

কিন্তু তারা এতটাই জেদি যে, একে অপরের সঙ্গে কিছুক্ষণ কথা বলার পর আবার চুপ করে যান তারা।এমনকি জিতেন্দ্র দরজা খুলে দেবার পর তারা আলাদা আলাদা দরজা থেকে বেরিয়ে আসেন। আবার আগের মতোই নিশ্চুপ হয়ে যান তারা। তাদের মধ্যে আগের মতো কথা বলাতে পারেনি কেউ।