কি মুশকিল, ৮৪ টি দেশের স্মার্ট টিভিগুলিতে চুপিসারে হানা দিয়েছে ম্যালওয়্যার, জেনে নিন উপায়

এবার স্মার্টটিভিতেও ম্যালওয়্যাল হানা। সম্প্রতি মার্কিন সাইবার সিকিওরিটি ফার্ম ব্যারাকুডা নেটওয়ার্ক এর তরফে জানানো হয়েছে, বিশ্বের প্রায় ৮৪ দেশের বিভিন্ন ডিভাইস নতুন এক ম্যালওয়্যারের কবলে পড়েছে। মোট ১৩,৫০০ টি অ্যান্ড্রয়েড টিভি এবং IoT(Internet Of Things) এর উপরে এই ভাইরাস হানা দিয়েছে। এর মধ্যে বেশির ভাগই এশিয়ার। সেই রিপোর্ট থেকে আরও জানা গিয়েছে, সংক্রমিত ডিভাইসের সংখ্যা আরও বিপুল আকারে বাড়তে পারে। মূলত ইন্টারপ্ল্যানেটারি ম্যালওয়ারের নতুন একটি সংস্করণ অ্যান্ড্রয়েড টিভি এবং অন্যান্য ডিভাইসে এই ধরনের হানা দিচ্ছে।

এই ম্যালওয়ার মূলত লিনাক্স-বেসড অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত ডিভাইসগুলিকে টার্গেট করছে। পাশাপাশি এই ম্যালওয়্যারের দ্বারা প্রভাবিত হচ্ছে রাউটারও। কী ভাবে এই ম্যালওয়্যার হানা দিচ্ছে, সে বিষয়ে টেক বিশেষজ্ঞরা এখনও কিছু বলতে পারছেননা। ব্যারাকুডা নেটওয়ার্কের গবেষকরা মনে করছেন, এই ম্যালওয়্যারের নিজেকে সুরক্ষিত রাখার বিশেষ ক্ষমতা রয়েছে। কোনও ডিভাইসে হানা দেওয়ার পর তা ডিভাইসের সিকিওরিটি সিস্টেম শনাক্ত করে এবং স্বয়ংক্রিয়ভাবেই আপডেট হয়। এই ম্যালওয়্যার এতটাই বিপজ্জনক যে, নিজে টিকে থাকতে ‘Go Daemon’ নামের একটি পরিষেবা ইনস্টল করে অন্য সফ্টওয়্যারগুলিকে নষ্ট করে দেয়।

এশিয়া মহাদেশের চিন, দক্ষিণ কোরিয়া, হংকং বা তাইওয়ানের তুলনায় ভারতের IoT ডিভাইসগুলিতে এই জাতীয় ম্যালওয়্যার আক্রমণের ঘটনা তুলনামূলকভাবে কম। ভারতের কান্ট্রি ম্যানেজার মুরালি ইউআরএস বলছেন, ম্যালওয়্যারটি বটনেট তৈরি করছে কী না, তা এখনও কারও গোচরে আসেনি। তবে এই ধরনের ম্যালওয়্যার সংক্রমিত ডিভাইসগুলির উপর গুরুতর প্রভাব ফেলে, যাতে পরে এগুলিকে Crypto Mining, Distributed Denial Service অ্যাটাক বা অন্যান্য বড় কোনও আক্রমণের জন্য ব্যবহার করা যায়।

বিশেষজ্ঞদের একাংশ মনে করছেন, রাউটার, IoT এবং অ্যান্ড্রয়েড ডিভাইসগুলি এই ম্যালওয়ারের সহজ লক্ষ্য। তবে এটি অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন, Mac এবং Windows এর কিছু ডিভাইসকেও টার্গেট করছে। গবেষকরা বলছেন, ম্যালওয়্যারটি কেবল দুর্বল কনফিগারযুক্ত ডিভাইসগুলিকে আক্রমণ করতে পারে। তাই ডিভাইসগুলিকে ম্যালওয়্যার সংক্রমণের হাত থেকে বাঁচাতে এগুলির SSH কে সঠিকভাবে কনফিগার করা প্রয়োজন। পাসওয়ার্ডের পরিবর্তে SHA256 Key ব্যবহার করলে এই ম্যালওয়্যারের হানা থেকে বাঁচা যাবে।